×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

শা‌ংহাইয়ে বাতিল শতাধিক উড়ান

নিজস্ব প্রতিবেদন
শাংহাই২৫ নভেম্বর ২০২০ ০৫:০১
-প্রতীকী চিত্র।

-প্রতীকী চিত্র।

২৪ নভেম্বর: শাংহাইয়ে ফের করোনার প্রকোপ দেখা দিতেই তৎপর হল চিনা প্রশাসন। আজ শাংহাই বিমানবন্দরের শতাধিক উড়ান বাতিল করা হয়েছে। সম্প্রতি শাংহাইয়ে পণ্য আমদানির সূত্রে বেশ কিছু সংক্রমণের খবর সামনে আসে। তার পরেই শাংহাই পুডং আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের হাজারেরও বেশি কর্মীর করোনা পরীক্ষা করেছে স্বাস্থ্য দফতর।

গত কয়েক দিন শাংহাইয়ে সাত জনের সংক্রমণের খবর মিলেছে। এর সঙ্গে বিমানবন্দর যোগ রয়েছে বলেই মনে করছে স্থানীয় প্রশাসন। তাই বিমানবন্দরে কর্মরত যে সব ব্যক্তির সংক্রমণের ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি, তাঁদের পরীক্ষামূলক ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। জরুরি পরিষেবার যুক্ত কর্মী ও সরকারি কর্মীদের উপরে পরীক্ষামূলক ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়েছে।

একটি পরিসংখ্যান সংস্থার দেওয়া তথ্যে দেখা যাচ্ছে, পুডং বিমানবন্দর থেকে পাঁচশোরও বেশি উড়ান বাতিল করা হয়েছে। গত কাল বিমানবন্দরের প্রায় ১৮ হাজার কর্মীর করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। পরীক্ষা করাতে বিরাট জমায়েতের ভিডিয়োও সামাজিক মাধ্যমে রবিবার রাতে ছড়িয়ে পড়েছে। দেখা যাচ্ছে, বিমানবন্দরের একটি অংশে কোভিড প্রতিরোধক (পিপিই, মাস্ক, গ্লাভস) পোশাক পরে ভিড় জমিয়েছেন অনেকেই। উত্তর চিনে তিয়ানজিন বিমানবন্দরে নির্ধারিত উড়ানের অর্ধেকেরও বেশি বাতিল করা হয়েছে। গত কয়েক দিনে প্রায় ২৬ লক্ষ মানুষের করোনা পরীক্ষাও করা হয়েছে। সংক্রমণের জেরে বিদেশ থেকে আমদানি করা হিমায়িত খাবারের প্যাকেট ও অন্য পণ্যের মাধ্যমে ভাইরাসের সংক্রমিত হচ্ছে কি না, তা-ও নজরে রাখছে প্রশাসন।

Advertisement

চিনে ফের সংক্রমণ মাথা চাড়া দেওয়ায় উদ্বিগ্ন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও (হু)। পশুদেহ থেকে কী ভাবে করোনার উৎপত্তি, তা খতিয়ে দেখতে শীঘ্রই আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞেরা চিন সফরে যেতে পারবেন বলে সোমবার বেজিংয়ের তরফে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে হু-কে।

হু-এর পদস্থ কর্তা মাইকেল রায়ান জানিয়েছেন, যত দ্রুত সম্ভব চিন সফরের বন্দোবস্ত করা হচ্ছে। শীঘ্রই এই বিষয়ে চিনা সহকর্মীদের পরীক্ষানিরীক্ষার ফলাফল ও তৃণমূল স্তর থেকে সংগৃহীত তথ্য আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞেরা খতিয়ে দেখবেন।

পশুদেহ থেকে কী ভাবে ভাইরাসের উৎপত্তি, তার তদন্ত করতে এক মাস ধরে আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞদের দলকে চিনে পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে হু। দলে রয়েছেন, পশু বিশেষজ্ঞ, এপিডিমিয়োলজিস্টরাও। প্রাথমিক পরীক্ষানিরীক্ষার জন্য জুলাইয়েই বেজিংয়ে একটি দল পাঠিয়েছিল হু।

জমায়েতে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও জার্মানির ১৬টি প্রদেশের প্রশাসনের পরিকল্পনা রয়েছে আসন্ন বড়দিন ও বর্ষবরণের উৎসব উদ্‌যাপনে কিছু বিধিনিষেধ শিথিল করা। সে ক্ষেত্রে একসঙ্গে সর্বোচ্চ ১০ জনকে উৎসব পালনে অনমতি দেওয়া হতে পারে। এ বিষয়ে অ্যাঙ্গেলা মের্কেলের সঙ্গে আগামী কাল বৈঠকে বসবেন ১৬টি প্রদেশের প্রতিনিধিরা। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রেক্ষিতে ইটালিতে অবশ্য আসন্ন উৎসবের মরসুমে স্কি বন্ধ রাখার পরামর্শ দিয়েছে প্রধানমন্ত্রী জুসেপ্পে কন্টে। সেখানকার স্কি রিসর্টগুলির আয়ের একটা বড় অংশই উপার্জন হয় উৎসবের মরসুমে। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে ঝুঁকি নিতে নারাজ কন্টে। সুইডেনে কয়েকটি নার্সিংহোমে গুরুতর ক্রুটির কথা উঠে এসেছে সে দেশের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত একটি রিপোর্টে। করোনা রোগীদের চিকিৎসাকেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত ওই নার্সিংহোমগুলিতে সাম্প্রতিক

কালে হাজারেরও বেশি রোগীর মৃত্যু হয়েছে। পোলান্ডে এই প্রথম ‘মিঙ্ক ফার্মে’ করোনা সংক্রমণের খবর পাওয়া গিয়েছে।

Advertisement