Advertisement
০৩ মার্চ ২০২৪
Job loss

চার মাসে চাকরি গেল তিন বার! প্রথমে স্ন্যাপ, তার পর অ্যামাজন, এ বার গুগল

একটি চাকরির অ্যাপে ওই সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার দাবি করেন, সম্প্রতি গুগল সংস্থার চাকরি থেকে বরখাস্ত হয়েছেন তিনি। গত দু’মাসের মধ্যেই ওই সংস্থায় যোগ দিয়েছিলেন তিনি।

এক প্রযুক্তি কর্মী দাবি করলেন, ৪ মাসে ৩ বার চাকরি খুইয়েছেন তিনি।

এক প্রযুক্তি কর্মী দাবি করলেন, ৪ মাসে ৩ বার চাকরি খুইয়েছেন তিনি। ছবি: প্রতীকী

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২২ জানুয়ারি ২০২৩ ১৭:৫০
Share: Save:

২০২২ সাল জুড়ে বিভিন্ন সংস্থা হাজার হাজার কর্মী ছাঁটাই করেছে। ২০২৩ সালের শুরুটাও আশা দেখাল না। বিভিন্ন সংস্থায় কর্মীছাঁটাইয়ের ধারা অব্যাহত। অ্যামাজন, টুইটার, গুগল এবং আরও ৯০টি প্রযুক্তি সংস্থা ৫০ হাজারেরও বেশি কর্মীকে ছাঁটাই করেছে। উদ্বেগে লক্ষ লক্ষ প্রযুক্তি কর্মী। এর মধ্যেই এক প্রযুক্তি কর্মী দাবি করলেন, ৪ মাসে ৩ বার চাকরি খুইয়েছেন তিনি।

একটি চাকরির অ্যাপে ওই সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার দাবি করেন, সম্প্রতি গুগল সংস্থার চাকরি থেকে বরখাস্ত হয়েছেন তিনি। গত দু’মাসের মধ্যেই ওই সংস্থায় যোগ দিয়েছিলেন তিনি। তবে সাম্প্রতিক কালে এই প্রথম নয়, তৃতীয় বার চাকরি হারিয়েছেন তিনি। ওই ইঞ্জিনিয়ার দাবি করেছেন, গত নভেম্বরে অ্যামাজনের চাকরি হারিয়েছেন এবং গত সেপ্টেম্বরে স্ন্যাপের চাকরি হারিয়েছেন।

অ্যাপে পোস্ট দিয়ে ওই কর্মী লিখেছেন, ‘এখন কী করব, জানি না। আমি ভাগ্যবান যে, বেশ কয়েকটি চাকরি পেয়েছি। কিন্তু এখন খুব শিগগিরই আমার চাকরির দরকার।’ হিসাবমতো, গত চার মাসে তিন বার চাকরি হারিয়েছেন ওই কর্মী। ওই পোস্টেই তিনি লিখেছেন, ‘‘কোনও বড় প্রযুক্তি সংস্থা কি কর্মী নিয়োগ করছে? আমি কি কয়েক মাস বিরতি নিয়ে ফের গ্রীষ্মে চাকরির খোঁজ করব? নাকি নিজের স্টার্টআপ শুরু করব? এই পরিস্থিতিতে চাকরি খোঁজা কি ঠিক হবে?’

সম্প্রতি অ্যামাজন ১৮ হাজার কর্মীকে ছাঁটাই করেছে। গুগলের সিইও সুন্দর পিচাই ১২ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের কথা ঘোষণা করেছেন। সারা দুনিয়া জুড়ে তাদের মোট কর্মীর ৬ শতাংশ ছাঁটাই করা হবে। ১০ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ের কথা ঘোষণা করেছে মাইক্রোসফট। ইলন মাস্ক দায়িত্ব নেওয়ার পর কর্মী ছাঁটাইয়ের পথে হেঁটেছে টুইটারও। গোটা দুনিয়াতেই প্রযুক্তি সংস্থার কর্মীরা বিপাকে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE