Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

মুক্তির আগে অভিনন্দনের নতুন কী বয়ান রেকর্ড করাল পাকিস্তান?

অভিনন্দনের মুক্তির আগে নতুন একটি ভিডিয়ো বার্তা নিয়ে বিতর্ক শুরু হল।

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি ০২ মার্চ ২০১৯ ০৩:১৯
Save
Something isn't right! Please refresh.
অভিনন্দন বর্তমান। ছবি: রয়টার্স।

অভিনন্দন বর্তমান। ছবি: রয়টার্স।

Popup Close

গত দু’দিন বায়ুসেনা কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানের একাধিক ভিডিয়ো ছড়িয়ে দিয়েছে পাকিস্তান কর্তৃপক্ষ। সেগুলি সরিয়ে নেওয়ার জন্য ইউটিউবকে অনুরোধও করেছে নয়াদিল্লি। অভিনন্দনের মুক্তির আগে নতুন একটি ভিডিয়ো বার্তা নিয়ে বিতর্ক শুরু হল।

ওয়াঘায় ভারতের হাতে তুলে দেওয়ার আগে উইং কমান্ডার অভিনন্দনকে দিয়ে ওই বিবৃতি রেকর্ড করানো হয় বলে অভিযোগ। ভিডিয়োয় অন্তত ১৬টি ‘কাট’ রয়েছে। ফলে অভিনন্দনের বিবৃতি যে ‘এডিট’ করা হয়েছে, তা স্পষ্ট। শুরু হয়েছে সমালোচনা।

ভিডিয়োয় অভিনন্দনকে বলতে শোনা গিয়েছে, ‘আমার নাম উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান। আমি ভারতের যুদ্ধবিমানের পাইলট। আমি টার্গেট খোঁজার চেষ্টা করছিলাম। সে সময় পাকিস্তানি বায়ুসেনা আমার বিমানকে মাটিতে নামায়। আমাকে বিমান ছেড়ে বেরিয়ে পড়তে হয়। কারণ, বিমান ভেঙে গিয়েছিল। আমার প্যারাস্যুট খোলে। নামার পরে আমার বাঁচার একমাত্র উপায় ছিল আমার পিস্তল। আমি পালানোর চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু অনেক লোক ছিল। তাঁদের জোশ একেবারে তুঙ্গে ছিল। আমাকে তাই পিস্তল ফেলে দিতে হয়।’’ এরপর অভিনন্দন বলেন, ‘‘এই সময় পাকিস্তানের দুই জওয়ান আসেন। দুই জওয়ান আমাকে বাঁচান। এক ক্যাপ্টেন ছিলেন। তাঁরা কিছু হতে দেননি। তাঁরা আমাকে ইউনিটে নিয়ে যান। ফার্স্ট-এড দেওয়া হয়। তারপরে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে আমার শারীরিক পরীক্ষা হয়।

Advertisement

আরও পড়ুন: প্রত্যাবর্তন: ডান চোখে আঘাতের চিহ্ন, দেশের মাটিতে পা দৃপ্ত অভিনন্দনের

পাক ডেরায় ৫৮ ঘণ্টা, উইং কমান্ডার অভিনন্দনের ডায়েরি

আমাকে ওষুধপত্র দেওয়া হয়। পাকিস্তান সেনা পেশাদার সেনা। আই সি পিস ইন ইট। আমি পাকিস্তানি সেনার সঙ্গে সময় কাটিয়েছি। আমি অভিভূত। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ছোট জিনিসকে বাড়িয়ে-চড়িয়ে বলে। ছোট বিষয়ে আগুন লাগিয়ে, লঙ্কা মাখিয়ে ভুল পথে চালিত করে।’’

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের ভূমিকা নিয়ে অভিনন্দনের এই বক্তব্য ঘিরেই সমালোচনা হচ্ছে। বলা হচ্ছে, ইমরান খান অভিনন্দনকে মুক্তি দিয়ে যে ইতিবাচক বার্তা দিয়েছিলেন, এই ভিডিয়ো তৈরি করে ছড়িয়ে দেওয়া তা নষ্ট করে দেওয়া হল।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement