Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Taslima Nasreen: প্রিয়ঙ্কা-নিককে আক্রমণ করতে সারোগেসি নিয়ে মন্তব্য করিনি, স্পষ্ট করলেন তসলিমা

সারোগেসি নিয়ে নিজের মন্তব্যের ব্যাখ্যা দিলেন তসলিমা নাসরিন। একই সঙ্গে জানালেন, বরাবরই প্রিয়ঙ্কার প্রশংসা করেছেন তিনি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৫ জানুয়ারি ২০২২ ০০:৩৫
Save
Something isn't right! Please refresh.


ছবি: সংগৃহীত।

Popup Close

সারোগেসির মাধ্যমে সন্তানের জন্ম দেওয়ায় প্রিয়ঙ্কা চোপড়া জোনাসের বিরুদ্ধে আক্রমণ শানাননি। প্রিয়ঙ্কা বা তাঁর স্বামী নিক জোনাসকে কটাক্ষও করেননি। সারোগেসি নিয়ে নিজের মন্তব্যের ব্যাখ্যা দিয়ে এ দাবি করলেন তসলিমা নাসরিন। একই সঙ্গে জানালেন, প্রিয়ঙ্কাকে কটাক্ষ করা তো দূরের কথা, উল্টে বরাবরই প্রিয়ঙ্কার প্রশংসক তিনি। প্রিয়ঙ্কার একটি পুরনো টুইট তুলে ধরে তাঁর মন্তব্যের সপক্ষেও যুক্তি দিয়েছেন তসলিমা।

সোমবার ফেসবুকে তাঁর সমালোচকদেরও একহাত নিয়েছেন তসলিমা। তিনি লিখেছেন, ‘সারোগেসি নিয়ে যেই না নিজের মত প্রকাশ করেছি, অমনি পঙ্গপালের মতো আমার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়লো তারা, যারা মেয়েদের শরীরকে পণ্য ভেবে অভ্যস্ত। মেয়েদের অসহায়ত্বের সুযোগে কিনে বা ভাড়া নিয়ে তাদের যৌনাঙ্গ এবং জরায়ু দখল করতে, সে সবে হামলা করতে তারা দ্বিধা করে না। সারোগেসি নিয়ে বিতর্ক করো, কেন এটিকে সমর্থন করছো।’

অর্থের বিনিময়ে নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যাঁরা সারোগেট মা হন, সেই সব মহিলারা কোন পরিস্থিতিতে এ কাজ করেন, তা ভেবে দেখা উচিত বলেও মনে করেন তিনি। তসলিমার মতে, যে সমাজ নিজেদের স্বার্থে যৌনকর্মকে জিইয়ে রাখতে চায়, সে সমাজই সারোগেসিকে টিকিয়ে রাখতে চাইবে। তাঁর মন্তব্য, ‘কেন আমার যুক্তি মানছো না বলো। তারা যুক্তি খণ্ডন করবে না, তারা গালি দেবে। সবারই এক মত, একটি মেয়ের যদি খুব সন্তানের শখ, নিজে যে কোনও কারণেই হোক সন্তান জন্ম দিতে পারছে না, সে তো সারোগেসির মাধ্যমে শখ পূরণ করতে পারছে। কাউকে দেখলাম না সারোগেট মেয়েটির কথা ভাবতে। নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কিছু টাকার জন্য সে কেন বাধ্য হচ্ছে ন'মাস সাত দিন অন্যের সন্তানকে গর্ভে বহন করতে, জন্ম দান করতে! তার যদি যথেষ্ট টাকাপয়সা থাকতো, তা হলে কি সে এই কাজটি করতো? না, করতো না। তা হলে কী কারণে সারোগেসির প্রশংসা করা হচ্ছে! যে সমাজ পতিতাবৃত্তি টিকিয়ে রাখতে চায়, সে সমাজ তো সারোগেসি টিকিয়ে রাখতে চাইবেই।’

Advertisement

প্রসঙ্গত, ১২ সপ্তাহ আগে সারোগেসির মাধ্যমে কন্যাসন্তানের মা হয়েছেন বলে গত ২১ জানুয়ারি জানিয়েছেন অভিনেতা প্রিয়ঙ্কা। এর পর সারোগেসি নিয়ে মন্তব্য করেন তসলিমা। তাঁর মতে, ধনী এবং ব্যস্ত খ্যাতনামীরা সারোগেসির মাধ্যমে নিজের জিনসমেত একটি রেডিমেড শিশু চান। এ নিয়ে তাঁর দীর্ঘ ফেসবুক পোস্টের পরই তসলিমার বিরুদ্ধে আড়াআড়ি ভাবে ভাগ হয়ে যায় নেটদুনিয়ার একাংশ। তসলিমার বিরুদ্ধে সমালোচনার ঝড় ওঠে। সমালোচকদের দাবি, প্রিয়ঙ্কা-নিককে আক্রমণ করেই সারোগেসি নিয়ে মন্তব্য করেছেন তসলিমা। তবে তিনি যে প্রিয়ঙ্কার বিরুদ্ধে মন্তব্য করেননি, সোমবার তসলিমা তা-ও স্পষ্ট করেছেন। ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, ‘লোকে বলছে প্রিয়ঙ্কাকে কেন কটাক্ষ করেছি। মোটেই তা করিনি। সাহসী মেয়ে প্রিয়ঙ্কা। তাঁর প্রশংসাই করেছি বরাবর। পুরোনো একটি টুইট পেলাম আজ। এ বার নতুন কী বলবে তারা? আমাকে অপমান অপদস্থ করা যত সহজ, তত সহজ দুনিয়াতে আর কিছু নয়।’

সেই সঙ্গে ২০১৬ সালের প্রিয়ঙ্কার একটি পুরনো টুইট তুলে ধরেন তিনি। তাতে দেখা গিয়েছেন, বাস্তবিকই প্রিয়ঙ্কার প্রশংসা করেছেন তসলিমা। স্রোতের বিপরীতে হাঁটা প্রিয়ঙ্কার প্রতি তাঁর মুগ্ধতাও জাহির করেছেন। তার উত্তরে টুইট করে প্রিয়ঙ্কাও জানিয়েছিলেন, সাহিত্যিক তসলিমার গুণমুগ্ধ তিনি।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement