২০ জুলাই ২০২৪
Sri Moni Bhaskar

ব্যবসায় ঝুঁকি এড়াবেন কী ভাবে? জানাচ্ছেন শ্রী মণি ভাস্কর

ছবি: শ্রী মণি ভাস্কর

ছবি: শ্রী মণি ভাস্কর

এবিপি ডিজিটাল ব্র্যান্ড স্টুডিয়ো
শেষ আপডেট: ১৫ মে ২০২৩ ১৮:৫২
Share: Save:

সফল কেরিয়ার তৈরি করা এবং তা বজায় রাখা এক বিষয় নয়। নির্দিষ্ট গতে বাঁধা প্রগতিহীন জীবন থেকে উত্তরণের পথে হাঁটতে গেলে নানা বাধা আসবেই, ঝুঁকিও থাকবে। চাকরি-ব্যবসা বা নিজস্ব কোনও পেশা ব্যবসা শুরু করা এক জিনিস, আর তা সম্প্রসারণ আর এক। আমরা সবাই প্রতিষ্ঠিত হতে চাই ব্যক্তিগত ভাবে, পেশাগত ভাবে। ব্যর্থতা কেউ চাই না। কিন্তু পিছিয়ে পড়া সব সময় খুব হতাশ করে। কী ভাবে এর মোকাবিলা করব? আজকের পর্বে আলোচনা করব, যাঁরা ব্যবসায় সম্প্রসারণ করতে চান, প্রাথমিক ভাবে তাঁদের কোন কোন বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে এবং সাফল্যের ক্ষেত্রে অন্তরায় হতে পারে কোন কোন ঝুঁকি।

ব্যবসা সম্প্রসারণ করবেন কখন?

  • ব্যবসার অন্যতম ভিত্তিই হল, তার ক্রেতা বা গ্রাহক থাকতে হবে। অর্থাৎ, আপনি যে পণ্য বিক্রি করছেন বা পরিষেবা দিচ্ছেন, তা কেনা বা নেওয়ার লোক থাকবে হবে।
  • গ্রাহকের চাহিদা অনুযায়ী পণ্যের সরবরাহ বজায় থাকতে হবে।
  • গ্রাহক/ক্রেতা যাতে পণ্য সম্পর্কে সন্তুষ্ট হন, সেটি নিশ্চিত করতে হবে।
  • গ্রাহক সংখ্যা ক্রমবর্ধমান হতে হবে ও তাদের চাহিদাও উত্তরোত্তর বাড়তে হবে।
  • তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে পণ্যের বিক্রি প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পেতে হবে।
  • যখন দেখা যাবে যে বর্তমান ব্যবসার যা পরিকাঠামো তা দিয়ে আর গ্রাহকের চাহিদা পূরণ করা যাচ্ছে না, তখন বুঝতে হবে যে ব্যবসা সম্প্রসারণের সময় হয়েছে।

আলোচনায় শ্রী মণি ভাস্কর

কিন্তু সম্প্রসারণ তো করবেন, ঝুঁকির বিষয়গুলি মাথায় রাখছেন তো? ব্যবসায় রিস্ক বা ঝুঁকি থাকবেই, ঝুঁকি মানে এমন কিছু অপ্রত্যাশিত দুর্ঘটনা বা দুর্ভোগ যা যে কোনও সময় ঘটে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। সফল ব্যবসায়ী হতে গেলে, কোন কোন ঝুঁকির বিষয়গুলি আপনাকে মাথায় রাখতেই হবে জেনে নিন।

ডিসকাউন্ট/ছাড় - ব্যবসার ক্ষেত্রে বছরের বিভিন্ন সময়ে নানান উপলক্ষ্যে বিশেষ অফার/ছাড় দেওয়া হয়, সেটা স্বাভাবিক, কিন্তু ক্রেতার অন্যায্য আবদার রাখতে গিয়ে যদি আপনি অতিরিক্ত ছাড় দিতে শুরু করেন, তা ব্যবসার ক্ষেত্রে বিপদ ডেকে আনতে পারে।

রেফারেন্স অফ ক্লায়েন্ট - একজন সন্তুষ্ট গ্রাহক অপর কোনও ব্যক্তিকে রেফার করতেই পারেন, কিন্তু পূর্বতন গ্রাহকের রেফারেন্স নিয়ে যিনি আপনার নতুন গ্রাহক হলেন, অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায়, সেই নতুন গ্রাহক (যিনি রেফারেন্সে এসেছেন) আপনার কাছে অতিরিক্ত কিছু দাবী করছেন বা ক্রেডিট চাইছেন বা সামান্য বিষয় নিয়ে অশান্তি করলেন। এক কথায়, এই নতুন গ্রাহক আপনাকে যথেষ্ট টেনশন দিতে পারেন।

ঋণ/ডেট - সমস্ত বড় ব্যবসায়ী-শিল্পপতি-উদ্যোগপতিদের ঋণ থাকে। ব্যবসায় বিনিয়োগের জন্যই তারা লোন/ঋণ নেন। আপনাকেও ব্যবসার জন্য প্রয়োজনে ঋণ নিতে হবে, কিন্তু যদি দেখা যায় ঋণের পরিমাণ বিপদসীমা লঙ্ঘন করে গেছে, যে পরিমাণ টাকা রোল হওয়ার কথা, টার্ন-ওভার হওয়ার কথা, তা হচ্ছে না.... সাবধান! অতিরিক্ত ঋণ বিপদ ডেকে আনতে পারে।

ম্যানেজেরিয়াল - অনেক সময় দেখা যায়, ব্যবসার পলিসি ঠিক আছে কিন্তু পরিচালনা সংক্রান্ত কোনও গলদ হচ্ছে। এই পরিচালনা সংক্রান্ত গলদের জেরে আপনার সঠিক পলিসিও কাজ করতে ব্যর্থ হতে পারে এবং চালু ব্যবসাতেও অশনি ঘনিয়ে আসতে পারে।

স্টাফ/কর্মী - কর্মীদের ব্যবহার, কাজের প্রতি তাদের আন্তরিকতা-নিষ্ঠা-সততা ব্যবসার অন্যতম মূলধন। কর্মীরা যদি গ্রাহকের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন, সংস্থার সুনাম রক্ষা করতে ব্যর্থ হন, সেই ব্যবসায় সমস্যা তৈরি হবেই।

চুরি - ব্যবসার জিনিসপত্র-দ্রব্য এমনকি মূলধনও চুরি হওয়ার আশঙ্কা থেকেই যায়, এমনকি শরিকি ব্যবসা বা পার্টনারশিপ ব্যবসায় কখনও কখনও দেখা যায়। পার্টনারই হয়তো বেশ অঙ্কের টাকা চুরি করে ব্যবসা নষ্ট করে ফেলল।

আইনি ঝঞ্ঝাট - সাফল্য আসলে, শত্রুতাও আসবে, ঝামেলা-ঝঞ্ঝাট-অশান্তিও আসবে, কিন্তু সেই অশান্তি একেবারে আদালতে পৌঁছে যাওয়া কখনোই কাম্য নয়। আপনার ভুল/কর্মীদের ত্রুটি/সতর্কতার অভাব বা শত্রুতা যে কোনও কারণেই আইনি বিভ্রাট ব্যবসার ক্ষেত্রে বিপদজনক লাল সঙ্কেত।

স্ট্র্যাটেজিক - ব্যবসা বা পেশাগত ক্ষেত্রে স্ট্র্যাটেজিক রিস্কও থাকে। কখন সম্প্রসারণ করবেন, বিজ্ঞাপন করবেন কিনা, কখন নতুন চুক্তি করবেন, নতুন কোনও শাখা খুলবেন কিনা, যে পলিসি বা সিদ্ধান্ত আপনি নিচ্ছেন তা আপনার সংস্থার পক্ষে হিতকর তো? অ-হিতকার বা হটকারী স্ট্র্যাটেজি অধিকাংশ ক্ষেত্রেই সাফল্যের পথে বড়সড় ঝুঁকি।

বিনিয়োগ - বিনিয়োগে ঝুঁকি তো থাকেই, শুধু ব্যবসায় নয়, চাকরিজীবী থেকে শুরু করে অন্যান্য পেশাদার যারাই বিনিয়োগ করেন, অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গেই বিনিয়োগ করতে হবে, না হলেই সমূহ বিপদের সম্ভাবনা।

মার্কেট ইকোনমি - আপনি কোনও ভুলই করলেন না, কর্মীদের তরফেও কোনও ত্রুটি-বিচ্যুতি হল না, অথচ ব্যবসায় লস হচ্ছে..... কারণ সামগ্রিক ভাবে বাজার ধুঁকছে। অর্থাৎ মার্কেট ইকোনমিও আর্থিক ক্ষেত্রে ঝুঁকির একটা বড় কারণ।

আর্থিক ক্ষেত্রে ঝুঁকি, যা বিপত্তি ডেকে আনতে পারে। তার আরও বেশ কিছু সূত্র এবং জ্যোতিষ ও বাস্তুগত ব্যাখ্যা পরবর্তী পর্বে আপনাদের সঙ্গে আলোচনা করব। আপনারাও নিজের ছোট-খাটো প্রয়োজনে প্রত্যেকদিনের শুভাশুভ গণনা শিখে, দুর্ভাগ্য হ্রাস করে সৌভাগ্যকে আকর্ষণ করতে পারেন ASTRAL DAILY PLANNING COURSE-এর মাধ্যমে। পৃথিবীর যে কোনও প্রান্ত থেকে আপনি এই অনলাইন কোর্স (মোবাইল-মোবাইল) শিখতে পারেন। Daily planning অর্থাৎ, দিনের কোন সময়ে জরুরি মিটিং করবেন, কখন গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেবেন, কখন সংযত আচরণ করলে ঝামেলা-ঝঞ্ঝাট এড়াতে পারবেন... আপনি নিজেই এই গণনা শিখতে পারবেন।

ASTRAL DAILY PLANNING COURSE এবং বাস্তু বিষয়ক পরামর্শ পেতে WhatsApp - 86173 72545 / 98306 83986 (Payable & Non-Refundable).

ডিসক্লেইমার: এটি একটি বিজ্ঞাপন প্রতিবেদন এবং বিজ্ঞাপনদাতার সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে প্রকাশিত। প্রতিবেদনে প্রকাশিত সমস্ত বক্তব্য / মন্তব্য একান্তই বিজ্ঞাপনদাতার নিজস্ব। এর সঙ্গে আনন্দবাজার অনলাইনের সম্পাদকীয় দফতরের কোনও সম্পর্ক নেই। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে অবশ্যই যাচাই করে নিন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Astrology Horoscope Business growth Vastu
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:

Share this article

CLOSE