খুবই সঙ্কটে দেশের গাড়ি শিল্প। টানা ৯ মাস ধরে দেশে কমেই চলেছে গাড়ি, মোটরসাইকেল, স্কুটার-সহ যানবাহন বিক্রির সংখ্যা। সেই বিক্রি পড়েছে জুলাই পর্যন্ত। ফলে, এই শিল্পে কাজ খোয়ানোর আশঙ্কা বাড়ছে উত্তরোত্তর। সোসাইটি অফ ইন্ডিয়ান অটোমোবাইল ম্যানুফ্যাকচারার্স (এসআইএএম)-এর তরফে মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

জুলাই পর্যন্ত তথ্য, পরিসংখ্যান দিয়ে বলা হয়েছে, বিক্রির পরিমাণ যেমন কমেছে যানবাহনের, তেমনই তার ধাক্কা সইতে হচ্ছে গাড়ির ডিলারদেরও। জুলাই পর্যন্ত যানবাহন বিক্রি কমেছে ৩১ শতাংশ। মোটরসাইকেল ও স্কুটার বিক্রির পরিমাণ কমার হার ১৬.৮ শতাংশ। আর যানবাহন বিক্রি কমেছে ৩৬ শতাংশ।

নয়াদিল্লিতে এক সাংবাদিক সম্মেলনে এসআইএএম-এর ডিরেক্টর জেনারেল বিষ্ণু মাথুর বলেছেন, ‘‘গাড়ি ও যানবাহন প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলি আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছে, বিক্রি বাড়ানোর। কিন্তু এই শিল্পের অবস্থা যাতে আরও খারাপ না হয়, সে জন্য সরকারকে এগিয়ে আসতে হবে। আর্থিক মদত দিতে হবে। দিতে হবে আরও কিছু সুযোগসুবিধা।’’

আরও পড়ুন- ধার কমাতে শেয়ার সেই সৌদি দৈত্যকে​

আরও পড়ুন- বাড়বে বিক্রি, আশা গাড়ি শিল্পের

গাড়িশিল্পের এই মন্দার ছবিটা ধরা পড়েছে শেয়ার বাজারেও। চলতি বছরে বোম্বে স্টক এক্সচেঞ্জে অটোমোবাইল শিল্পের শেয়ারের দাম পড়েছে ২৩  শতাংশ। মারুতি সুজুকির মতো এগিয়ে থাকা গাড়িনির্মাতা সংস্থারও বাজারমূল্য পড়েছে ১৮.৩ শতাংশ।

এই অধঃপতনের কারণ কী?

গাড়িশিল্পের সঙ্গে জড়িত বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দেশের অর্থনৈতিক বৃদ্ধির রথের চাকার গতি শ্লথ হয়ে পড়ায় গাড়ি কেনার উৎসাহেও কিছুটা ভাটা পড়েছে। তার ফলে, গাড়িশিল্পে কর্মী ছাঁটাই, বেতন সঙ্কোচনের ঘটনা ঘটছে আকছার। কর্মীরা প্রত্যাশিত প্রোমোশন পাচ্ছেন না।