Advertisement
২৫ জুন ২০২৪
Gautam Adani

তদন্ত করতে আমেরিকার সংস্থাকে নিয়োগ করার খবর গুজব, বিবৃতি দিয়ে জানাল আদানিরা

২৪ জানুয়ারি, রিপোর্ট প্রকাশ করে আদানিদের বিভিন্ন সংস্থার অন্দরে আর্থিক কারচুপির অভিযোগ এনেছে হিন্ডেনবার্গ রিসার্চ। তার পর থেকে আদানিদের একের পর এক সংস্থার শেয়ারে ধস নেমেছে।

Not hiring Grant Thornton for independent audit, Adani Enterprises declares

রিপোর্ট প্রকাশ করে আদানিদের বিভিন্ন সংস্থার ভিতরে আর্থিক কারচুপির অভিযোগ এনেছে হিন্ডেনবার্গ রিসার্চ। ফাইল চিত্র ।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ১৩:৫৫
Share: Save:

হিন্ডেনবার্গের অভিযোগের সত্যতা যাচাই করতে নিজেদের বিভিন্ন সংস্থার অন্দরে তদন্ত করতে নিয়োগ করা হচ্ছে না আমেরিকার আর্থিক সংস্থা ‘গ্রান্ট থর্নটন’-কে। বিবৃতিও জারি করে এমনটাই জানাল ভারতীয় ধনকুবের গৌতম আদানির মালিকানাধীন আদানি এন্টারপ্রাইজ। বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, আদানি গোষ্ঠীর কয়েকটি সংস্থায় কোনও আর্থিক অসঙ্গতি বা দুর্নীতি রয়েছে কি না, তা স্বতন্ত্র ভাবে যাচাই (অডিট) করে দেখতে আমেরিকার আর্থিক সংস্থা ‘গ্রান্ট থর্নটন’কে নিয়োগ করার খবরের কোনও সত্যতা নেই। এই বিষয়টিকে গুজব বলেই দাবি করেছে আদানিরা। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘‘আমরা স্পষ্ট করে জানিয়ে দিতে চাই যে, কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে উল্লেখ করা হয়েছে যে, আদানি গোষ্ঠীর মালিকানাধীন সংস্থাগুলিতে স্বতন্ত্র ভাবে যাচাই করতে আমেরিকার সংস্থাকে নিয়োগ করা হয়েছে। কিন্তু এই খবর গুজব। বর্তমানে এই প্রসঙ্গে মন্তব্য করা আমাদের পক্ষে অনুপযুক্ত।’’

২৪ জানুয়ারি, রিপোর্ট প্রকাশ করে আদানিদের বিভিন্ন সংস্থার ভিতরে আর্থিক কারচুপির অভিযোগ এনেছে হিন্ডেনবার্গ রিসার্চ। তার পর থেকে আদানিদের একের পর এক সংস্থার শেয়ারে ধস নেমেছে। নিজেদের ‘সাম্রাজ্যের’ প্রায় অর্ধেক সম্পত্তি ইতিমধ্যেই খুইয়ে ফেলেছে আদানি গোষ্ঠী। তার পর থেকেই সংস্থাগুলির শেয়ারের দরে ‘রক্তক্ষরণ’ কমাতে একের পর এক পদক্ষেপ করছে আদানি গোষ্ঠী। আদানিদের দাবি ছিল, এই রিপোর্টের মাধ্যমে ভারতের উপর ‘পরিকল্পিত হামলা’ হয়েছে। মিথ্যা অভিযোগ সাজিয়ে ভারতীয় সংস্থার বদনাম করাই হিন্ডেনবার্গের মূল উদ্দেশ্য। এর পর দিন কয়েক আগে হিন্ডেনবার্গের বিরুদ্ধে আইনি লড়াইয়ে আমেরিকার অন্যতম ব্যয়বহুল এই আইনি সংস্থা ‘ওয়াচটেল, লিপ্টন, রোজ়েন অ্যান্ড কাটজ়’-কে নিয়োগ করেছে আদানি গোষ্ঠী।

এর পর আদানিদের তরফে এ-ও জানানো হয়েছিল, হিন্ডেনবার্গ রিপোর্টের অভিযোগ, বিভিন্ন সংস্থার লেনদেন এবং অভ্যন্তরীণ বিভাগগুলির কার্যক্রম খতিয়ে দেখতে স্বতন্ত্র ভাবে তদন্তের ব্যবস্থা করা হবে। তার পরই আদানিদের বিভিন্ন সংস্থার আর্থিক দিকগুলি স্বতন্ত্র ভাবে খতিয়ে দেখতে আদানিরা ‘গ্রান্ট থর্নটন’কে নিয়োগ করেছে বলে খবর উঠে আসে। তবে সেই খবরকে গুজব বলেই উড়িয়ে দিল আদানি গোষ্ঠী।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE