রান্না করে খেতে ইচ্ছে না করলে আপনার বাড়িতে রেস্তরাঁর খাবার পৌঁছে দেয় জোমাটো। এটাই তাদের ব্যবসা। সেই জোমাটোই এবার বলছে বাড়ির খাবার খেতে। অবাক হলেন? তাহলে নিজেই দেখে নিন জোমাটোর সেই টুইট। আর জোমাটোর এই টুইট দেখে আরও কয়েকটি সংস্থা নেমে পড়ে একই রকম টুইট করতে। তবে শেষে তাদেরকেও আবার জোমাটোর কাছে খোঁচা খেতে হল।

জোমাটো ইন্ডিয়া তাদের ভেরিফায়েড টুইটার হ্যান্ডলে ৩ জুলাই একটি টুইট করে। সেখানে ইংরেজি হরফে হিন্দিতে লেখে, কখনও কখনও ঘরের তৈরি খাবারও খাওয়া উচিত (গাইস, কভি কভি ঘরকা খানা ভি খা লেনা চাহিয়ে)।

জোমাটোর এই টুইট ভাইরাল হয়ে যায়। তারপরই আসরে নেমে পড়ে ইউটিউব ইন্ডিয়া, অ্যামাজন প্রাইম ভিডিয়ো আইএন, আইএক্সআইজিও, মোবিক্যুইক, এফএএএসওএস-র মতো সংস্থা। তারও জোমাটোর টুইটকে রিটুইট করে নিজেদের মতো করে দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চেয়েছে। যেমন অ্যামজন প্রাইম লিখেছে, কখনও কখনও কেবলে (টিভি)-তেও কিছু দেখা উচিত। মোবিক্যুইক তাদের টুইটার হ্যান্ডেলে লিখেছে, কখনও কখনও লাইনে দাঁড়িয়ে বিদ্যুতের বিল জমা দেওয়া উচিত। ইউটিউব যেমন লিখেছে, কখনও কখনও রাত ৩টায় ফোন পাসে রেখে ঘুমিয়ে পড়া উচিত। তার আগে দেখে নিন জোমাটো কী লিখেছিল।

 

 

 

 

 

 

 

আরও পড়ুন : এই স্থূলকায় মানুষদের খণ্ডযুদ্ধ দেখে দয়া করে হাসবেন না!

আরও পড়ুন : বয়ফ্রেন্ডের ক্রেডিট কার্ড থেকে ওয়েটারকে পৌনে ৪ লক্ষ টাকা টিপ, গ্রেফতার মহিলা

এই টুইটগুলি ৪ থেকে ৭ জুলাইয়ের মধ্যে হয়েছে।তবে এই সবের পর ৮ জুলাই ফের আসরে নামে জোমাটো। বাকিদের নিয়ে মজা করে তাদের টুইটার হ্যান্ডলে লেখে, কখনও কখনও নিজেদেরও ভাল টুইট ভাবা উচিত (গাইস, কভি কভি খুদ কে আচ্ছে টুইট ভি সোচ লেনা চাহিয়ে)।