• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

টাওয়ার বসানোর নাম করে প্রতারণা, ধৃত ১৩

arrest
প্রতীকী ছবি।

মোবাইল টাওয়ার বসানোর নাম করে লক্ষাধিক টাকার প্রতারণার অভিযোগে সল্টলেক থেকে ১৩ জনকে গ্রেফতার করা হল। সোমবার রাতে সোনারপুর থানার পুলিশ সেখানে তল্লাশি অভিযান চালায়।

পুলিশ সূত্রের খবর, পাঁচ নম্বর সেক্টরে ইসিপিএস থানার পাশেই রীতিমতো অফিস খুলে চলছিল এই প্রতারণার ব্যবসা। একটি মোবাইল সংস্থার টাওয়ার বসানোর নাম করে বিভিন্ন লোককে ফোন করা হত। টাওয়ার বসালে ২৫ লক্ষ টাকা ও চাকরির টোপ দেওয়া হত। কেউ রাজি হলে তাঁর থেকে প্রসেসিং ফি-সহ নানা কারণ দেখিয়ে টাকা হাতাত ধৃতেরা।

পুলিশের দাবি, শুধু টাওয়ার বসানো নয়। বিমা সংস্থার নাম করে প্রতারণা করা হত বলেও অভিযোগ। এই ঘটনায় বিভিন্ন প্রভাবশালী ব্যক্তিও জড়িত বলে মনে করছেন তদন্তকারীরা। বেশ কয়েকটি নামও পাওয়া গিয়েছে বলে পুলিশ সূত্রের খবর। ওই অফিস থেকে ৭০টি মোবাইল ফোন, ৩০টি ল্যান্ডফোন, তিনটি ল্যাপটপ, দু’টি কম্পিউটার, ৫০টির মতো সিমকার্ড ও নগদ দেড় লক্ষ টাকা উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোনারপুর থানা সূত্রের খবর, সোমবার দক্ষিণ ২৪ পরগনার মগরাহাট থানা এলাকার বাসিন্দা রাজেন্দ্রনাথ পাল নামে এক ব্যক্তি একটি মোবাইল সংস্থার নামে অভিযোগ দায়ের করেন। তাঁর বাড়িতে টাওয়ার বসানো হলে তিনি ২৫ লক্ষ টাকা ও টাওয়ার রক্ষণাবেক্ষণের চাকরি পাবেন বলে তাঁকে টোপ দেয় প্রতারকেরা। মাসে ১৫ হাজার টাকা টাওয়ারের ভাড়া বাবদ দেওয়া হবে বলে প্রতিশ্রুতিও দেওয়া হয়। সোনারপুর স্টেশনে বেশ কয়েক বার ওই সংস্থার কয়েক জন কর্মী রাজেন্দ্রর সঙ্গে দেখা করেন। নানা অজুহাত দেখিয়ে লক্ষাধিক টাকা রাজেন্দ্রবাবুর কাছ থেকে নেওয়া হয়। সন্দেহ হওয়ায় রাজেন্দ্রবাবু সোনারপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন