বিমানের রক্ষণাবেক্ষণের কাজ করতে গিয়ে অস্বাভাবিক মৃত্যু হল একটি বেসরকারি বিমান সংস্থার কর্মীর।  মঙ্গলবার রাত ২ টো নাগাদ কলকাতা বিমানবন্দরে ঘটনাটি ঘটেছে। মৃত ওই যুবকের নাম রোহিত বীরেন্দ্র পাণ্ডে (২৬)। বাড়ি মুম্বইয়ে। বিমানবন্দরের গ্রাউন্ড ইঞ্জিনিয়র হিসাবে কাজ করতেন রোহিত।

মঙ্গলবার রাতে বীরেন্দ্র হ্যাঙারে বিমান রক্ষণাবেক্ষণের কাজ করছিলেন। একটি বিমানের ডান দিকের চাকার তলায় কাজ করছিলেন তিনি। বীরেন্দ্রর সহকর্মীদের দাবি, এই সময় হঠাৎই বিমানের চাকা গোটানোর যে হাইড্রোলিক সাকশন সিস্টেম রয়েছে, তা চালু হয়ে যায়। ফলে বাতাসের টানে বীরেন্দ্রর মাথা থেকে ঘাড় অবধি অংশ হাইড্রোলিক সিস্টেমের মধ্যে ঢুকে যায়। কিছু ক্ষণ ছটফট করেই দমবন্ধ হয়ে নিস্তেজ হয়ে পড়েন বীরেন্দ্র। সহকর্মীরা দ্রুত তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

যদিও ওই বেসরকারি বিমান সংস্থার দাবি, কাজ করতে গিয়ে হঠাৎই জ্ঞান হারান এই তরুণ। তাকে হাসপাতালে নিয়ে যেতেও দেরি হয়নি, তবু বাঁচানো যায়নি তাঁকে।

আরও পড়ুন: উড়ালপুলে ফের ফাটল, যানজটে ভোগান্তি চরমে

জলকর নয়, অপচয় বন্ধে জরিমানাই পথ!