• অনুপ চট্টোপাধ্যায়
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পুরনো গাড়ি নিয়ে কোর্টের নির্দেশে বিপাকে পুরসভা

bus
১০ বছরের বেশি পুরনো গাড়ি চালানো যাবে না বলে সম্প্রতি নির্দেশ দিয়েছে পরিবেশ আদালত।—প্রতীকী ছবি।

কলকাতার রাস্তায় ১০ বছরের বেশি পুরনো গাড়ি চালানো যাবে না বলে সম্প্রতি নির্দেশ দিয়েছে পরিবেশ আদালত। আর তাতেই মাথায় হাত কলকাতা পুরসভার। কারণ, আবর্জনা সরানোর জন্য পুরসভার গাড়িগুলির অধিকাংশেরই বয়স ১০ বছরের বেশি। অর্থাৎ, আদালতের নির্দেশ মানতে হলে পুরসভার জঞ্জাল অপসারণের কাজটাই যাবে থমকে।

আপাতত এ নিয়ে কী করা উচিত, তা নিয়ে পুরভবনে সম্প্রতি একটি জরুরি বৈঠক করেন পুর কমিশনার খলিল আহমেদ। সেই বৈঠকে ছিলেন পরিবেশকর্মী সুভাষ দত্ত। সেখানেই সিদ্ধান্ত হয়েছে, আদালতের ওই নির্দেশ ধাপে ধাপে মেনে চলার জন্য আবেদন জানানো হবে। 

এর আগে কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে বলা হয়েছিল, ১৫ বছরের বেশি পুরনো গাড়ি বাতিল করতে হবে। সেই মতো ১৬৩টি গাড়ি বাতিল করে পুরসভা। এ বার ‘বর্ধমান কৌশিক জাজমেন্ট’-এর পরে পরিবেশ আদালত জানিয়েছে, ১০ বছরের বেশি পুরনো গাড়ি পথে নামানো যাবে না এবং ভারত স্টেজ ৬ মডেলের গাড়ি চালাতে হবে। পুরসভা সূত্রের খবর, বর্তমানে ২৫০টি ভাড়া করা গাড়ি ধাপায় জঞ্জাল ফেলার কাজ করে থাকে। এ ছাড়াও রয়েছে পুরসভার নিজস্ব কিছু গাড়ি। পরিবেশ আদালতের নির্দেশ মানতে হলে বর্তমানে এই গাড়িগুলির মধ্যে মাত্র ২ শতাংশ ব্যবহারযোগ্য থাকবে। 

পুর কমিশনার খলিল আহমেদ জানিয়েছেন, বর্তমানে দৈনিক সাড়ে ৪ হাজার মেট্রিক টন জঞ্জাল শহর থেকে ধাপায় ফেলা হয়। এর জন্য প্রতিদিন গাড়ির প্রয়োজন। তাই এর বিকল্প ব্যবস্থা না করা গেলে বড় সমস্যার মুখোমুখি হতে হবে পুর প্রশাসনকে। পুরসভা সূত্রের খবর, ওই বৈঠকে ভারত স্টেজ ৬ মডেলের গাড়ি কেনা নিয়েও কথা হয়েছে। এক পুর আধিকারিক জানান, নির্দিষ্ট ‘জেম’ (গভর্মেন্ট ই-মার্কেটপ্লেস) পদ্ধতিতে ওই মডেলের গাড়ি কিনতে হবে। সমস্যা হল, ওই মডেলের গাড়ি এখনও ‘জেম’-এর মধ্যে আসেনি, ফলে এখনই কেনা সম্ভব নয়। ওই ধরনের গাড়ি ভাড়া নেওয়ার জন্য টেন্ডার ডাকতেও সময় লাগবে অনেকটাই। ফলে সব মিলিয়ে পরিবেশ আদালতের নির্দেশমতো ১০ বছরের বেশি পুরনো গাড়িগুলি একই সঙ্গে বাতিল করা সম্ভব নয়। তাই আদালতের কাছে পরিস্থিতি ব্যাখ্যা করে আবেদনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুর প্রশাসন। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন