• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ব্যাঙ্ক প্রতারণার অভিযোগে গ্রেফতার

ATM
প্রতীকী ছবি।

ইংল্যান্ডের এক অনাবাসী ভারতীয়ের অ্যাকাউন্ট থেকে কয়েক লক্ষ টাকা হাতানোর অভিযোগে গৌরব সাতওয়ানি এবং অরুণ সাউ নামে দু’জনকে গ্রেফতার করল পুলিশ। এর মধ্যে গৌরব হল মূল পাণ্ডা। তার বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে কয়েক কোটি টাকা। ধৃতদের বৃহস্পতিবার আদালতে তোলা হলে ১২ অক্টোবর পর্যন্ত পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

পুলিশ সূত্রের খবর, গত অগস্টে একটি বেসরকারি ব্যাঙ্কের দক্ষিণ কলকাতার জ়োনাল ম্যানেজার ইন্দ্রনীল আচার্য লালবাজারে ব্যাঙ্ক প্রতারণা শাখায় একটি অভিযোগ দায়ের করে জানান, ইংল্যান্ডের এক প্রবাসী ভারতীয়ের ওই ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট ছিল। তা থেকে প্রায় ৮৫ লক্ষ টাকা উধাও হয়ে গিয়েছে। এর পরে শেক্সপিয়র সরণি থানায় অভিযোগ দায়ের করে তদন্ত শুরু করে পুলিশ। তদন্তে জানা যায়, ওই টাকা ৪টি আলাদা আলাদা অ্যাকাউন্টে ঢোকানো হয়েছে এবং বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন এটিএম থেকে সেই টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে।

টাকা তোলার সূত্র ধরে প্রথমে মহেশতলার বাসিন্দা অরুণকে গ্রেফতার করা হয়। জেরায় সে জানায়, তার অ্যাকাউন্টে টাকা জমা পড়লে তা তুলে গৌরবের হাতে দেওয়াই তার কাজ। এর বদলে কমিশন পায় সে। এর পরেই বুধবার বেহালার বাসিন্দা গৌরবকে গ্রেফতার করেন ব্যাঙ্ক প্রতারণা শাখার গোয়েন্দারা। তার বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় প্রায় সাত কোটি টাকা। 

পুলিশ সূত্রের খবর, গৌরব এক সময়ে কল সেন্টারে কাজ করত এবং নিজেও কল সেন্টার খুলেছিল। সেখান থেকে দেশ-বিদেশের অনেকের নম্বরই তার কাছে ছিল। ব্যাঙ্কের কার্ডে বা তথ্যে ভুল আছে জানিয়ে ফোন করে ওই ব্যক্তিদের একটি লিঙ্ক পাঠাত সে। তাঁরা সেই লিঙ্ক খুললেই সব তথ্য জেনে নিয়ে টাকা সরিয়ে নিত গৌরব। টাকা সরানোর 

জন্য নিজের বদলে অরুণের অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করত সে। গোয়েন্দাদের অনুমান, গৌরব এ ভাবে অনেকেরই টাকা হাতিয়েছে। তবে এই চক্রে আরও কেউ জড়িত কি না, তার খোঁজ করছেন গোয়েন্দারা।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন