• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দিক বদলে মোকাবিলা যান-সমস্যার

tala
নিয়ম ভেঙে মুখোমুখি গাড়ি। বৃহস্পতিবার, বিবিবাজার মোড়ে। ছবি: দেবস্মিতা ভট্টাচার্য

পরীক্ষামূলক প্রয়োগ এবং তার ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নেওয়া। বৃহস্পতিবার, উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার প্রথম দিনে এ ভাবেই টালা চত্বরের যান-সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করল পুলিশ। এ দিন কাশীপুর রোড উভমুখী হিসেবে ব্যবহার করা হল। দু’দিকে গাড়ি চলল খগেন চ্যাটার্জি রোডেও। পাশাপাশি, দিনের দু’টি পৃথক সময়ে অভিমুখ বদলে লকগেট উড়ালপুলকেও ব্যবহার করা হল উভমুখী হিসেবে। বাসযাত্রীদের ভোগান্তি কমাতে সেগুলিকে লেভেল ক্রসিং ঘুরিয়ে বি টি রোডের দিকে নিয়ে আসার বদলে চালানো হল মূলত লকগেট উড়ালপুল এবং কাশীপুর রোড দিয়ে।

বুধবার ব্যস্ত সময়ে টালা সেতুর আশপাশের রাস্তায় ব্যাপক যানজট দেখা গিয়েছিল। নতুন তৈরি লেভেল ক্রসিং হয়ে কাশীপুর রোডে আসা বাস ও মালবাহী গাড়ি এবং কাশীপুর রোড দিয়ে আসা ছোট গাড়ি এক জায়গায় মিলিত হয়ে প্রায় গতিহারা হয়ে পড়ে। সেখানেই ঢুকে আরও বেশি সমস্যা তৈরি করে ৪বি বাসস্ট্যান্ড-বি কে পাল অ্যাভিনিউ রুটের অটো। গাড়ির সঙ্গে সেগুলির মুখোমুখি সংঘর্ষের আশঙ্কায় বিপজ্জনক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। এই প্রশ্নও ওঠে, লেভেল ক্রসিং দিয়েই যদি মালবাহী গাড়ির সঙ্গে বাস চালানো হবে, তা হলে বাসযাত্রীদের ভোগান্তি কমল কই?

পুলিশ সূত্রের খবর, বুধবারই ওই এলাকা ঘুরে দেখেন কলকাতা পুলিশের ডিসি (ট্র্যাফিক) রূপেশ কুমার। এর পরেই বৃহস্পতিবার সময়ের ভিত্তিতে লকগেট উড়ালপুলের অভিমুখ বদলে দেয় পুলিশ। সকাল ছ’টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ওই উড়ালপুল দিয়ে কলকাতার দিকে পাঠানো হয় বাস এবং ছোট গাড়িকে। দুপুর ১টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত কলকাতা থেকে বি টি রোডের দিকে গাড়ি যাতায়াত করে। তবে ভারী মালবাহী গাড়ি এবং অটোর পাশাপাশি লকগেট উড়ালপুল ধরতে না-চাওয়া মোটরবাইকগুলিকে প্রাণকৃষ্ণ মুখার্জি রোড দিয়ে লেভেল ক্রসিং পার করানো হয়। যাতে তারা সেখান থেকে কাশীপুর রোড ধরতে পারে। তবে বুধবারের মতো এ দিন ভারী মালবাহী গাড়িকে কাশীপুর রোডে নিয়ে যাওয়া হয়নি। সেগুলিকে লেভেল ক্রসিং, স্ট্র্যান্ড ব্যাঙ্ক রোড, সর্বমঙ্গলা ঘাট, বিবিবাজার মোড় হয়ে বি টি রোডে বার করা হয়। ডিসি (ট্র্যাফিক) বলেন, ‘‘বিবিবাজারের কাছে কাশীপুর রোড সঙ্কীর্ণ। সেখানকার চাপ কমাতেই এই ব্যবস্থা। সব মিলিয়ে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীরা সমস্যায় পড়েনি, এটাই বড় কথা।’’

পুলিশের দাবি, খগেন চ্যাটার্জি রোড উভমুখী করে দেওয়ায় দু’টি সুবিধা হয়েছে। প্রথমত, ভারী মালবাহী গাড়িকে ওই রাস্তা ধরে বি টি রোডে বার করা গিয়েছে। দ্বিতীয়ত, দুপুর ১টার পরে লকগেট উড়ালপুল উত্তরমুখী (বি টি রোডমুখী) হয়ে যাওয়ায় পাশের কাশীপুর রোড ধরে সহজেই কলকাতার দিকে গাড়ি আসতে পেরেছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন