বেহাল রাস্তার কারণে আপাতত এক দিনের জন্য বন্ধ হল স্বরূপনগর থেকে বারাসত যাওয়ার ডিএন ৩৫ রুটের ২৮টি সীমান্ত এক্সপ্রেস বাস। বাসচালকদের দাবি, বেহাল রাস্তার জন্য গাড়ির বড় রকম ক্ষতি হচ্ছে। প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটছে। সংশ্লিষ্ট দফতরে একাধিকবার জানিয়েও কোনও সুরাহা হয়নি। তাই এই সিদ্ধান্ত। এতেও কর্তৃপক্ষের টনক না নড়লে অনির্দিষ্ট কাল বাসবন্ধের ডাক দেওয়া হবে। 

বাস ইউনিয়নে সম্পাদক আব্দুল রহুক গায়েন বলেন, ‘‘নিত্যানন্দকাটির বাসস্ট্যান্ডের অবস্থা খুবই খারাপ। বাসস্ট্যান্ডের কাদায় আটকে পড়ছে বাস। এ সব কারণে মঙ্গলবারের  জন্য বাস চলাচল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’’
জেলা পরিষদের পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ নারায়ন গোস্বামী বলেন, ‘‘ওই রাস্তার কাজ দ্রুত শুরু হবে। সেতুর মেরামতি কাজ হয়ে গেলেই সব স্বাভাবিক হয়ে যাবে।’’ ব্লক প্রশাসন ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, স্বরূপনগরের বিথারী ফুটবলমাঠ থেকে বালতি সেতু পর্যন্ত প্রায় আট কিলোমিটার রাস্তার অবস্থা শোচনীয়। মোটরবাইক, সাইকেল, ভ্যানরিকশা চালক এবং পথচারীদের হয়রানি হচ্ছে। বাসরুটটি বন্ধ হওয়ায় স্বরূপনগরের সীমান্তবর্তী গ্রাম থেকে এক বাসে বারাসত যাওয়া বন্ধ হয়ে যায়। রুটের যাত্রীদের চরম নাকাল হতে হয়। বিশেষ করে অসুবিধা হয় স্কুল ও কলেজ পড়ুয়াদের। 

অন্য দিকে, এ দিন দুপুরে হাসনাবাদ থানার পার  হাসনাবাদের অটোচালকদের সঙ্গে টোটোচালকদের গন্ডগোলের জেরে  সন্ধে পর্যন্ত হাসনাবাদ থেকে রূপমারি রুটের অটো চলাচল বন্ধ থাকে। যার জেরে বিপাকে পড়তে হয় ওই রুটের যাত্রীদের।