×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৭ জুন ২০২১ ই-পেপার

‘আমাকে চুপ করাতে অন্য এক নারীকে মিথ্যেয় শামিল করতে হল’, যৌন হেনস্থার অভিযোগে অনুরাগের নিশানায় কঙ্গনা

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১০:৩৪
ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

টুইটারে দু’পক্ষের মধ্যে বাগ-বিতণ্ডা চলছিল বেশ কিছু দিন ধরেই। তার সঙ্গে লেগেছিল রাজনীতির রংও। অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতের সঙ্গে পরিচালক অনুরাগ কশ্যপের বিরোধ এ বার চরম আকার ধারণ করল। যৌন হেনস্থার অভিযোগ ঘিরে ইতিমধ্যেই অনুরাগের গ্রেফতারির দাবি তুলেছেন কঙ্গনা। কিন্তু এই বিতর্কের জন্য এ বার কঙ্গনাকেই পাল্টা কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন অনুরাগ। তাঁর অভিযোগ, তাঁকে চুপ করানোর জন্য এত মিথ্যে বলতে হচ্ছিল যে, নারী হয়ে অন্য এক নারীকে সেই মিথ্যেয় শামিল করতে হল। যদিও সরাসরি কারও নাম উল্লেখ করেননি অনুরাগ। তবে তিনি আসলে কঙ্গনাকেই নিশানা করেছেন বলে জল্পনা।

শনিবার অনুরাগের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনেন মায়ানগরীর উঠতি মুখ, বঙ্গতনয়া পায়েল ঘোষ। সরাসরি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং তাঁর দফতরকে ট্যাগ করে অনুরাগ তাঁর সঙ্গে অভব্য আচরণ করেছেন বলে অভিযোগ করেন তিনি। বিষয়টি সামনে আসতেই মুহূর্তের মধ্যে মাঠে নেমে পড়েন কঙ্গনা রানাউত। অনুরাগের গ্রেফতারির দাবি তোলেন তিনি। তা নিয়ে সঙ্গে সঙ্গে কোনও মন্তব্য করেননি অনুরাগ। কিন্তু মধ্যরাতের পর থেকে পর পর বেশ কয়েকটি টুইট করে যাবতীয় অভিযোগ নস্যাৎ করে দেন তিনি। জানিয়ে দেন, তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ ভিত্তিহীন। সেখানেই নাম না করে কঙ্গনাকে একহাত নেন তিনি।

এ দিন অনুরাগ টুইটারে লেখেন, ‘‘দারুণ ব্যাপার যে আমাকে চুপ করানোর চেষ্টা করতে এত সময় লেগে গেল। সে না হয় ঠিক আছে। কিন্তু আমাকে চুপ করানোর জন্য এত মিথ্যে বলতে হচ্ছিল যে নারী হয়ে অন্য এক নারীকে সেই মিথ্যেয় শামিল করতে হল। ম্যাডাম, অন্তত একটু শালীনতা বজায় রাখুন। আমি শুধু এইটুকুই বলব যে, যা যা অভিযোগ আনা হয়েছে, সব ভিত্তিহীন। আমাকে কালিমালিপ্ত করতে গিয়ে আমার কলাকুশলী, এমনকি বচ্চন পরিবারকে টেনে আনাটা মোটেই বুদ্ধির কাজ হয়নি।’’

Advertisement



অনুরাগের টুইট।

আরও পড়ুন: বলিউডের রাজনীতিতে অনুরাগের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ

অনুরাগ আরও লেখেন, ‘‘হ্যাঁ, দু’বার বিয়ে করেছি আমি। তা যদি অপরাধ হয়, তাহলে অপরাধ স্বীকার করছি। অনেক বার প্রেমেও পড়েছি, তা-ও মেনে নিচ্ছি। কিন্তু আমার প্রথম স্ত্রী হোন বা দ্বিতীয়, প্রেমিকা অথবা কোনও অভিনেত্রী, যে মহিলাদের নিয়ে কাজ করি তাঁরা অথবা অন্য যে কোনও মহিলা, যাঁর সঙ্গে নিভৃতে দেখা হয় বা জনসমক্ষে, কখনও কারও সঙ্গে অশালীন আচরণ করিনি এবং এই ধরনের আচরণ কোনও ভাবে সমর্থনও করি না। এর পর যাই হোক না কেন, শেষ দেখে ছাড়ব।’’

আরও পড়ুন: বাবুলকে মানহানির নোটিস অভিষেকের​

সুশান্ত সিংহ রাজপুতের অস্বাভাবিক মৃত্যু, তার জন্য রিয়া চক্রবর্তীকে কাঠগড়ায় দাঁড় করানো এবং মাদক যোগ নিয়ে বলিউডের দিকে আঙুল তোলায় বেশ কিছু দিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় অনুরাগ কশ্যপ ও কঙ্গনা রানাউতের মধ্যে তরজা চলছিল। বরাবর বিজেপি বিরোধী বলে পরিচিত অনুরাগ শাসক দলের সঙ্গে দহরম মহরম নিয়ে কঙ্গনাকে কটাক্ষও করেন। কিছু সুযোগসন্ধানী মানুষ কঙ্গনাকে উস্কানি দিয়ে আখেরে অভিনেত্রীর ক্ষতি করছেন বলে মন্তব্য করেন তিনি। জবাবে ব্যক্তিগত জীবনের ওঠাপড়া নিয়ে অনুরাগকে কটাক্ষ করেন কঙ্গনা। তার মধ্যেই গত কাল অনুরাগের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিয়োগ ওঠা এবং তা নিয়ে কঙ্গনার সরব হওয়ার পিছনেও রাজনৈতিক যোগ রয়েছে বলে জল্পনা শুরু হয়েছে।



Tags:
Anurag Kashyap Sexual Harassment MeToo Kangana Ranaut Payal Ghosh Bollywood Sushant Singh Rajput Mumbai BJP Moviesঅনুরাগ কাশ্যপকঙ্গনা রানাউত।

Advertisement