Advertisement
২৫ জুলাই ২০২৪
Deepika Padukone Pregnancy

শুধু রণবীর নন, অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় তাঁর যত্ন নেন প্রভাসও, কী ভাবে? জানালেন দীপিকা

‘কল্কি ২৮৯৮ এডি’ ছবির একটি অনুষ্ঠানে হাজির হন দীপিকা। সেখানে নিজের চেহারার জন্য কেন দায়ী করলেন প্রভাসকে?

Deepika Padukone jokingly points at her growing baby bump and says its because of prabhas

(বাঁ দিকে) রণবীর-দীপিকা। প্রভাস (ডান দিকে)। ছবি: সংগৃহীত।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ২০ জুন ২০২৪ ১৯:৩৩
Share: Save:

এক দিকে ‘কল্কি ২৮৯৮ এডি’ ছবি মুক্তির অপেক্ষা। একই সঙ্গে নেটাগরিকদের কৌতূহল ছিল এই ছবির অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোনের স্ফীতোদর নিয়ে। অভিনেত্রীর স্ফীতোদর কি আসল, না নকল? এই প্রশ্ন তুলেছিল নেটাগরিকের একাংশ। এ বার ‘কল্কি ২৮৯৮ এডি’ ছবির একটি অনুষ্ঠানে সকলকে উত্তর দিলেন অভিনেত্রী। কালো শরীরচাপা পোশাকে স্ফীতোদর নিয়ে হাজির হন দীপিকা। সঙ্গী ছিলেন প্রভাস, অমিতাভ বচ্চন, কমল হাসন, এবং রানা দগ্গুবতিরা। যদিও এ দিনের অনুষ্ঠানের মধ্যমণি দীপিকাই। গোটা টিম তটস্থ হবু মায়ের জন্যে। সেখানেই নিজের স্ফীতোদরের জন্য প্রভাসদের দিকে আঙুল তুললেন অভিনেত্রী!

Deepika Padukone jokingly points at her growing baby bump and says its because of prabhas

‘কল্কি ২৮৯৮ এডি’ ছবির প্রচার অনুষ্ঠানে (বাঁ দিক থেকে) দীপিকা, অমিতাভ এবং প্রভাস। ছবি: সংগৃহীত।

সেপ্টেম্বরেই নতুন অতিথিকে স্বাগত জানাবেন দীপিকা-রণবীর। সে দিক থেকে দেখলে বাকি মাত্র তিন মাস। স্ফীতোদর নিয়ে এখন হাঁটতে-চলতে একটু অসুবিধা হচ্ছে। মঞ্চে উঠবার জন্য এ দিন দীপিকার দিকে সাহায্যের হাত বাড়ান অমিতাভ। স্টেজ থেকে নামার সময়ও অভিনেত্রীকে সাহায্য করার জন্য ছুটে যান প্রভাস। সেই নিয়ে প্রভাসকে নিয়ে খানিক ঠাট্টাও করেন শাহেনশাহ। যদিও দীপিকাকে এ দিন দেখা গিয়েছে নিজের স্ফীতোদর বার বার স্পর্শ করতে।

অন্তঃসত্ত্বা দীপিকাকে নিয়ে মজা করেন রানা। তিনি বলেন, ‘‘অন্তঃসত্ত্বা সুমতির চরিত্রে অভিনয় করার পরে আজই স্ফীতোদর নিয়ে হাজির দীপিকা।” ছেড়ে দেওয়ার পাত্রী নন দীপিকাও, তিনি বলেন, ‘‘সিনেমাটি তিন বছর ধরে চলেছিল, আমার মনে হয়েছিল, আরও ৯ মাস কেন নয়।’’ যদিও দীপিকা নিজের চেহারার জন্য দায়ী করেছেন প্রভাসকে। তিনি শুটিং চলাকালীন খাওয়াদাওয়ার এমন এলাহি আয়োজন করতেন যার কারণে অভিনেত্রীর চেহারার এই অবস্থা। তিনি বলেন, ‘‘প্রভাস আমাকে এত খাবার খাইয়েছিল তার জন্যই আমার এমন অবস্থা। অবস্থা এমন জায়গায় পৌঁছেছিল যে কেবল বাড়ি থেকে নয়, ক্যাটারিং থেকেও খাবার আসা শুরু হয়। আসলে ও মন থেকে মানুষকে খাওয়াতে ভালবাসে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE