Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৬ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

Toofaan: মুক্তির প্রাক্কালে ‘তুফান’-কে বয়কটের ডাক, সাংবাদিক সম্মেলনে বিতর্ক এড়িয়ে গেলেন ফারহান-রাকেশ

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১২ জুলাই ২০২১ ১৭:২৭
‘তুফান’ ছবিতে ফারহান।

‘তুফান’ ছবিতে ফারহান।

১৬ জুলাই অ্যামাজন প্রাইমে মুক্তির আগেই বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে ‘তুফান’। রাকেশ ওম প্রকাশ মেহরা পরিচালিত স্পোর্টস ড্রামা ঘরানার ছবিতে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করবেন ফারহান আখতার এবং ম্রুনাল ঠাকুর। নেটাগরিকদের একাংশের অভিযোগ, ছবিতে ইসলাম ধর্মাবলম্বী আজিজের (ফারহানের চরিত্র) সঙ্গে হিন্দু ধর্মের অনন্যার (ম্রুনালের চরিত্র) প্রেমের সম্পর্ক দেখিয়ে ‘লাভ জেহাদ’-কে উস্কে দেওয়া হচ্ছে। তাই মুক্তির প্রাক্কালে নেটমাধ্যমে ‘তুফান’-কে বয়কটের ডাক দিয়েছেন তাঁরা।

এই বিতর্কের আবহেই ‘টিম তুফান’ অর্থাৎ রাকেশ, ফারহান এবং ম্রুনাল কথা বললেন কলকাতার সাংবাদিকদের সঙ্গে। মাটির ভাঁড়ে চা, ফুচকা, সন্দেশ এবং সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের কথায় ভার্চুয়াল আড্ডার শুরু। শেষ হয় সকলের সঙ্গে হাসিমুখে ভার্চুয়াল নিজস্বী দিয়ে । ৩০ মিনিটের খানিক বেশি সময় ধরে চলা আলোচনায় ছবির তারকাদের কেউই তুললেন না ‘লাভ জেহাদ’ বিতর্কের প্রসঙ্গ।

এই প্রথম নয়, অতীতেও ‘লাভ জেহাদ’ প্রচার করার অভিযোগ আনা হয়েছে একাধিক ছবি বা ওয়েব সিরিজের বিরুদ্ধে। ‘লক্ষ্মী’, ‘কেদারনাথ’, ‘আ স্যুটেবল বয়’-কে ঘিরেও দানা বেঁধেছিল এই বিতর্ক।


Advertisement

গত নভেম্বর মাসে শিরোনামে উঠে এসেছিল মীরা নায়ার পরিচালিত সিরিজ ‘আ স্যুটেবল বয়’। ওই সিরিজের কিছু দৃশ্যে হিন্দু ভাবাবেগে আঘাত করা হয়েছে, এই অভিযোগে এক বিজেপি নেতা এফআইআর দায়ের করেছিলেন নেটফ্লিক্সের বিরুদ্ধে। প্রশ্ন উঠেছিল, হিন্দু মেয়ের সঙ্গে মুসলিম ছেলের প্রেমের গল্পে চুম্বন দৃশ্য কেন মন্দির প্রাঙ্গণের ভিতর দেখানো হয়েছে।

এ বার ‘তুফান’ নিয়েও টুইটে অসন্তোষ প্রকাশ করেছে নেটাগরিকদের একাংশ। অনেকেই এই ছবিকে হিন্দু সংস্কৃতির পরিপন্থী বলে চিহ্নিত করেছেন। একাধিক টুইটের মাধ্যমে ফারহান এবং পরিচালকের বিরুদ্ধেও ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তাঁরা।

২০১৩ সালে ‘ভাগ মিলখা ভাগ’ ছবিতে প্রথম একসঙ্গে কাজ করেছিলেন ফারহান এবং রাকেশ। প্রয়াত অলিম্পিয়ান অ্যাথলিট মিলখা সিংহের ভূমিকায় দেখা গিয়েছিল ফারহানকে। বক্স অফিসে সাফল্যের সঙ্গে সমালোচকদেরও প্রশংসা পায় ছবি। আট বছর পর আবারও একই ঘরানার ছবিতে তাঁদের যুগলবন্দি। কিন্তু এ বার নামী ক্রীড়াবিদ নয়, এই ছবিতে ফারহান মুম্বইয়ের ডোংরি এলাকার এক স্থানীয় গুন্ডা। বিশৃঙ্খল জীবনকে পরাস্ত করে পরবর্তী কালে যে বিশ্বমানের বক্সার হয়।

রাকেশের কথায়, “এই ছবি ‘ভাগ মিলখা ভাগ’-এর থেকে কতটা আলাদা জানি না। কিন্তু ‘তুফান’ নতুন একটা গল্প বলবে। এই গল্প অনুপ্রেরণার গল্প, জীবনের ওঠাপড়ার গল্প, সমাজ এবং কাছের মানুষদের সঙ্গে লড়াইয়ের গল্প। মানুষ তুফান চরিত্রটির সঙ্গে নিজের মিল খুঁজে পাবে।”


এই ছবির জন্য প্রত্যেক দিন আট থেকে নয় ঘণ্টা কড়া অনুশীলন করেছিলেন ফারহান। নিজের সঙ্গে মিলিয়ে দিয়েছিলেন পর্দার চরিত্রকে। ঠিক যেমনটা করেছিলেন ‘ভাগ মিলখা ভাগ’-এর সময়। “এখনও পর্যন্ত অনেকগুলো চরিত্রে অভিনয় করেছি। প্রত্যেকটা থেকেই কিছু না কিছু শিখেছি। মানুষ হিসেবেও সেই শিক্ষা আমাকে অনেকটা বদলেছে। একই ভাবে তুফানের চরিত্র থেকেও বেশ কিছু জিনিস আমার সঙ্গে থেকে যাবে”, বললেন ফারহান।

কোনও রকম নেতিবাচকতা নয়। ‘ভাগ মিলখা ভাগ’-এর মতোই সাফল্য পাবে ‘তুফান’। এই আশাতেই আপাতত দিন গুনছেন ফারহান, রাকেশ, ম্রুনালরা।

আরও পড়ুন

Advertisement