Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Mon Phagun: শুভ দৃষ্টি, মালাবদল শন-সৃজলার, মধুচন্দ্রিমা কোথায়

ভি লাইন স্টুডিয়োয় স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘মন ফাগুন’-এর সেট থেকে সেই বিয়ের প্রত্যক্ষ সাক্ষী একমাত্র আনন্দবাজার অনলাইন।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৩:৪৩
মালা বদল, সাতপাক, সিঁদুরদান-সহ বিয়ের সমস্ত নিয়ম নিখুঁত ভাবে পালন করলেন ‘ঋষিরাজ’ এবং ‘পিহু’।

মালা বদল, সাতপাক, সিঁদুরদান-সহ বিয়ের সমস্ত নিয়ম নিখুঁত ভাবে পালন করলেন ‘ঋষিরাজ’ এবং ‘পিহু’।

বিয়েবাড়ির শেষ মুহূর্তের চূড়ান্ত ব্যস্ততা। এক দিকে বাসর ঘর সাজানো শেষ। অন্য দিকে বিয়ের মণ্ডপের সাজসজ্জা তখনও অল্প বাকি। কেউ ফুলের মালা জড়িয়ে দিচ্ছেন সিঁড়ির দু’পাশে। পাশে রাখা লাল গোলাপের পাপড়ির ঝুড়ি। সেখান থেকে কেউ বিছানো লাল গালিচার উপর ছড়িয়ে দিচ্ছেন গোলাপ ফুলের পাপড়ি। এখানেই মালা বদল, সাতপাক, সিঁদুরদান-সহ বিয়ের সমস্ত নিয়ম নিখুঁত ভাবে পালন করলেন শন বন্দ্যোপাধ্যায় ওরফে ‘ঋষিরাজ’ এবং সৃজলা গুহ ওরফে ‘পিহু’। ভি লাইন স্টুডিয়োয় স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘মন ফাগুন’-এর সেট থেকে সেই বিয়ের প্রত্যক্ষ সাক্ষী একমাত্র আনন্দবাজার অনলাইন।

চিত্রনাট্য মেনে দু’জনেই মন থেকে চাননি এই বিয়েটা হোক। পরিবারের চাপে তাঁদের অমত যদিও খড়কুটোর মতোই ভেসে গিয়েছে। তবু আয়োজন, বিয়ের সাজে কিন্তু কোনও খামতি নেই! বিকেল ৪টেয় সাত নম্বর স্টুডিয়োর রূপটান-কক্ষে পা দিতেই বরের সাজে বেরিয়ে এলেন শন। মেরুন রঙের ডিজাইনার ধুতি। মানানসই ঘিয়ে রঙা বন্ধগলা পাঞ্জাবি আর ধুতির রঙের উত্তরীয়। কপালে চন্দনের ফোঁটা। চোখে রিমলেস সাদা চশমা। শন সাতপাক ঘুরতে প্রস্তুত! একটু দুশ্চিন্তা হচ্ছে? জানতে চাইতেই আনন্দবাজার অনলাইনকে সপ্রতিভ ভাবে জানালেন, ‘‘এই নিয়ে ছোট-বড় পর্দা মিলিয়ে মোট ছ’বার বিয়ে হল। আমি পুরোপুরি চাপমুক্ত!’’ জানালেন, 'আমি সিরাজের বেগম’ ধারাবাহিকে ইসলামি মতে বিয়ে হয়েছিল। ‘এখানে আকাশ নীল’ ধারাবাহিকে আইনি মতে বিয়ে। আর ‘মন ফাগুন’-এ নিখুঁত ভাবে হিন্দু মতে বিয়ে হচ্ছে। বাকি খ্রিস্টান মতে বিয়ে। ওটা হলেই নাকি শনের বিয়ের ষোলোকলা পূর্ণ!

Advertisement
এই নিয়ে ছোট-বড় পর্দা মিলিয়ে মোট ছ’বার বিয়ে হল শনের।

এই নিয়ে ছোট-বড় পর্দা মিলিয়ে মোট ছ’বার বিয়ে হল শনের।


শন বরবেশে তৈরি। এ দিকে তখনও সেজেই চলেছেন সৃজলা! লাল বেনারসী, পুরো হাতা ব্লাউজ, আপাদমস্তক গয়নায় মুড়ে বধূবেশে তিনি। কপালে তখন চন্দন আঁকা হচ্ছে। তুলির কাজ শেষ হতেই খোঁপায় চুলের মালা, মাথায় টিকলি দিয়ে সাজ শেষ। ‘পিহু’ ধীর পায়ে হেঁটে চলেছেন বিয়ের মণ্ডপে! এ দিকে বিয়েবাড়িতে হইচই শুরু। সাংবাদিকেরা এসে গিয়েছেন উদ্যোগপতি ঋষিরাজের বিয়ের অনুষ্ঠান ক্যামেরাবন্দি করতে। দুই পরিবারের সদস্যরা তাঁদের সামলাতে সামলাতেই সেখানে হাজির বর-কনে। তার পর সাত পাক, মালা বদল। শুভ দৃষ্টির সময় একে অন্যের চোখে যেন সাময়িক ভাবে হারিয়ে গিয়েছিলেন দুই অভিনেতা!


এই প্রথম সৃজলা অভিনয় দুনিয়ায়। প্রথম ধারাবাহিকেই মুখোমুখি শনের মতো জনপ্রিয় অভিনেতার। তা হলে কি অভিনয় করতে করতেই প্রেম এল সৃজলার মনে? গা ভরা গয়না সামলাতে সামলাতে অভিনেত্রীর দাবি, ‘‘সেটে সারাক্ষণ ঝগড়া চলছে। তার উপর বিয়ের এই ধকল। রোজ হাতে মেহেন্দি করাচ্ছি। রোজ উঠে যাচ্ছে! সঙ্গে ভারী লেহেঙ্গা, শাড়ি, গয়না, রূপসজ্জা। প্রেম সরে গিয়ে ছেড়ে দে মা কেঁদে বাঁচি দশা।’’

রসিকতাও করলেন, ‘‘মনে হচ্ছে মধুচন্দ্রিমাও সেটের মধ্যেই হবে।’’

আরও পড়ুন

Advertisement