পূর্ণ দৈর্ঘ্যের ছবি‘তিনকন্যা’-র প্রাথমিক কাজ শেষ।এই ছবির তিনটি গল্প—‘বিনোদিনী’,‘বেডশিট’ও ‘গুড মর্নিং রেভল্যুশন’। ইংরেজিতে নাম।
তিনটি সম্পূর্ণ আলাদা গল্প হলেও যোগসূত্র থাকবে কোথাও। সেই মিল মেয়েদের ঝড় পেরিয়ে এগিয়ে যাওয়ার গল্প বলবে।পুরুষবৃত্তের ক্ষমতার বলয়ে তিন নারীর নিজেকে খোঁজার গল্প।কখনও সাংস্কৃতিক দুনিয়ায় পুরুষ আধিপত্য পেরিয়ে যাওয়া নারী, কখনও রাজনৈতিক ডিসকোর্সে নারীর মাটি আঁকড়ে থাকার গল্প, কখনও সাবঅল্টার্ন এক নারীর রুখে দাঁড়ানোর গল্প।

তিন কন্যার অভিনয় করছেন ঋ সেন, সায়ন্তনী গুহঠাকুরতা, অমৃতা চট্টোপাধ্যায়। ছবির প্রযোজক মণিদীপা মুখোপাধ্যায়।

‘বেডশিট’এক সাবঅল্টার্ন নারীর চোখে সম্ভ্রান্ত সমাজকে দেখার গল্প। একটি বেডশিট চুরি ঘিরে আবর্তিত হয় ছবিটি।উঠে আসে বিভিন্ন চরিত্রের মুখোশের আড়ালে আসল মুখ। এক পরিচারিকার জীবনের লড়াই এই ছবির বিষয়। মূল চরিত্রে সায়ন্তনী গুহ ঠাকুরতা। ‘ইশান আর আমার কিছু ঘনিষ্ঠ দৃশ্য ছিল। ইশানের সঙ্গে আগে থেকে বন্ধুত্ব থাকায় অভিনয়টা করতে অসুবিধে হয়নি। আর আমাদের প্রযোজক মণিদীপা খুব সহযোগিতা করেছে। পরিচালক সব্যসাচী ভৌমিকের সঙ্গে কাজ করেও ভাল লেগেছে,’’বললেন সায়ন্তনী।

আরও পড়ুন: শুটিং ও খুনসুটি

‘তিন কন্যা’য় তিনটি সম্পূর্ণ আলাদা গল্প হলেও যোগসূত্র থাকবে কোথাও। 

সব্যসাচী ভৌমিকের প্রথম ফিচার ফিল্ম ‘তিন কন্যা’। এর আগে ‘সিক্সথ আগস্ট’, ‘ইউ আর লকড’-এর মতো স্বল্প দৈর্ঘ্যের ছবি করেছেন তিনি।
‘বিনোদিনী’গল্পে অভিনয় করেছেন ঋ। ‘‘আমি বরাবর বোল্ড চরিত্রে অভিনয় করে আসছি। ‘বিনোদিনী’সে জায়গায় অন্যরকম চরিত্র। পরিচালক সব্যসাচী ভৌমিকের সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতাও বেশ,’’বললেন আর এক কন্যা ঋ।

‘বিনোদিনী’ গল্পে অভিনয় করেছেন ঋ।

অন্য দিকে অমৃতা চট্টোপাধ্যায়, এখানে রাজনীতির বৃত্তে দেখা যাবে তাঁকে। তাঁর কথায়: ‘‘কলেজের ছাত্রী কেমন করে রাজনীতি করতে করতে বৃহত্তর রাজনীতিতে পৌঁছে গেল এবং তার পরিবারের কী রিঅ্যাকশন হল এই নিয়েই আমার গল্প।’’

তিন নারীর গল্পের শুট শেষ। এ বার প্রকাশের অপেক্ষায়।

আরও পড়ুন: বনি-কৌশানির নতুন ছবি ‘জানবাজ’, মুক্তি পেল ট্রেলার