Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৬ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Priyanka-Kareena: তুমি নিজের স্বামীকে একেবারেই চেনো না, প্রিয়ঙ্কাকে খোঁচা করিনার

প্রিয়ঙ্কা-করিনার ঠান্ডা লড়াইয়ের মূল কারণ, অভিনেতা শাহিদ কপূর। করিনার সঙ্গে প্রেম ভেঙে যাওয়ার পরে শাহিদ প্রিয়ঙ্কার সঙ্গে প্রেম করতেন।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৫ নভেম্বর ২০২১ ১৪:০৫
Save
Something isn't right! Please refresh.
প্রিয়ঙ্কা-নিক এবং করিনা

প্রিয়ঙ্কা-নিক এবং করিনা

Popup Close

‘‘পিসি (প্রিয়ঙ্কা চোপড়ার নামকে ছোট করে যে ভাবে বলা হয়), তুমি তোমার স্বামী নিক জোনাসকে একদমই চেনো না যা দেখছি।’’ বলিপাড়ার এক অনুষ্ঠানে প্রিয়ঙ্কার দিকে এমনই কটাক্ষ ছুড়ে দেন করিনা কপূর। তার কারণ জানতে গেলে একটু ফিরে দেখতে হবে।

এক সময়ে বলিউডের প্রথম সারিতে প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে দাঁড়িয়েছিলেন করিনা এবং প্রিয়ঙ্কা। হিন্দি ছবির সফল নায়িকা হিসেবে এই দু’জনের নামই ঠোঁটে আসত বলিপ্রেমীদের। একে অপরের প্রতিদ্বন্দ্বী হলেও দুই অভিনেত্রীর মধ্যে সুসম্পর্ক ছিল। কিন্তু কয়েকটি ঘটনার পর তাঁরা নাকি একে অপরের মুখ দেখতেন না। বলি সূত্রের খবর, ঠান্ডা লড়াইয়ের মূল কারণ, অভিনেতা শাহিদ কপূর। করিনার সঙ্গে প্রেম ভেঙে যাওয়ার পরে শাহিদ প্রিয়ঙ্কার সঙ্গে প্রেম করতেন।

কিন্তু সেই সম্পর্কের সমীকরণও গেল পাল্টে। করিনা বিয়ে করলেন বলি অভিনেতা সইফ আলি খানকে। হলেন করিনা কপূর খান। প্রিয়ঙ্কা বিয়ে করলেন আমেরিকার পপ গায়ক নিক জোনাসকে। ব্যক্তিগত জীবনে সুখী তাঁরা। এমনই সময়ে বলি প্রযোজক কর্ণ জোহর তাঁর একটি রিয়্যালিটি শো-এ এই দুই তারকাকে অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ জানান। খেলার অঙ্গ হিসেবে কর্ণ তাঁদের স্বামীদের নিয়ে প্রশ্ন করতে থাকেন। নায়িকারা তাঁদের স্বামীর সম্পর্কে কতটা ওয়াকিবহাল, তা যাচাই করতেই এই পরীক্ষা। কিন্তু প্রিয়ঙ্কা সেই পরীক্ষায় সফল হতে পারেন না। নিকের গান চিনতে পারেননি তিনি। সেই সময়ে মশকরা করে করিনা বলেন, ‘‘পিসি, তুমি তোমার স্বামী নিক জোনাসকে একদমই চেনো না যা দেখছি।’’

Advertisement

প্রিয়ঙ্কা কিন্তু এক মুহূর্ত সময় না নিয়েই সেই মন্তব্যের জবাব দেন। বলেন, ‘‘আমি নিককে বিয়ে করেছি, ওর পেশাদার জীবনকে নয়। আর ওকে বিয়ে করার আগে গুগল করিনি।’’

সম্প্রতি নিক এবং প্রিয়ঙ্কার বিয়ে নিয়ে নানাবিধ প্রশ্ন উঠেছে। টুইটার, ইনস্টাগ্রামে প্রিয়ঙ্কা তাঁর নাম থেকে স্বামীর এবং নিজের পদবী সরিয়ে দিতেই বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে নানা কথা উঠেছে। যদিও তার পরে ইনস্টাগ্রামে তারকা-দম্পতির প্রেমমাখা কথোপকথন দেখে সেই জল্পনায় ইতি পড়েছে। একইসঙ্গে নায়িকার মা এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, এ সবই মিথ্যে রটনা।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement