Advertisement
২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২
Pregnancy

Health benefits of Chocolate: অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় খিদে পেলেই চকোলেট খাচ্ছেন? কী ফল দাঁড়াচ্ছে এতে

অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় চকোলেট খেলে মা ও সন্তানের ক্ষতি হওয়ার কোনও আশঙ্কা নেই। এই সময় চকোলেট খেলে উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা কমে।

ডার্ক চকোলেটে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেশিয়াম পাওয়া যায়, যা রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে।

ডার্ক চকোলেটে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেশিয়াম পাওয়া যায়, যা রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে। ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৪ মার্চ ২০২২ ১৩:০০
Share: Save:

অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় কী খাবেন আর কী খাবেন না, তা নিয়ে বিশেষ সচেতন থাকুন।এই অবস্থায় মহিলাদের বিভিন্ন ধরনের মুখোরোচক খাবার খেতে ইচ্ছে করে! কারও চিজ স্লাইস খেতে ইচ্ছে করে, কেউ আবার এই সময় ফুচকা দেখলে নিজেকে সামলাতে পারেন না। কারও আবার মিষ্টির প্রতি আসক্তি জন্মায়।

কিন্তু হবু মায়েদের চকোলেট খাওয়া কি আদৌ নিরাপদ? বেশি চকোলেট খেলে কি সন্তানের ক্ষতি হতে পারে? এই সব প্রশ্ন লেগেই থাকে সন্তান সম্ভবাদের মনে! বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় চকোলেট খেলে মা ও সন্তানের ক্ষতি হওয়ার কোনও আশঙ্কা নেই। এই সময় চকোলেট খেলে উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা কমে। শুধু তাই নয়, এই অবস্থায় চকোলেট খেলে আরও অনেক সুফল মিলতে পারে। তবে মিল্ক চকোলেট নয়, সুস্বাস্থ্য পেতে ভরসা রাখুন ডার্ক চকোলেটের উপর।

মানসিক অবসাদ কমায়: হবু মায়েদের শরীরে হরমোনানের ভারসাম্য বিঘ্নিত হয়। এর ফলে নানা ধরনের মানসিক চাপ ও হতাশা দেখা দেয়। চকোলেট এই মানসিক চাপ কমাতে অনেকটাই সাহায্য করে। বিশেষ করে ডার্ক চকোলেট এই ক্ষেত্রে উপকারী।

অনিচ্ছাকৃত গর্ভপাতের ঝুঁকি কমে: বিভিন্ন সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় নিয়মিত যাঁরা চকোলেট খেয়েছেন, তাঁদের মধ্যে প্রথম তিন মাসের মধ্যে গর্ভপাত হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা ২০ শতাংশ কমেছে।

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে: চকোলেট খেলে অনেকক্ষণ পেট ভরা থাকে। ডার্ক চকোলেট খেলে মিষ্টি, নোনতা, ফ্যাট জাতীয় খাবার খাওয়ার প্রবণতা কমে। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে এক টুকরো ডার্ক চকোলেট ‌খেয়ে ফেলতে পারেন। এতে ওজন থাকবে নিয়ন্ত্রণে আর মিষ্টি খাওয়ার সাধও পূরণ হবে। ডার্ক চকোলেট খেলে রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রাও নিয়ন্ত্রণে থাকে।

সন্তানের বুদ্ধির বিকাশে: চকোলেটের মধ্যে থাকে কোকো, যা মস্তিষ্কের কার্যকারিতা বাড়াতে সাহায্য করে। কোকোর মধ্যে থাকে প্রচুর মাত্রায় ফ্ল্যাভনয়েড, যা মস্তিষ্কে রক্তের সঞ্চালনা বাড়িয়ে দেয়। শরীর, মন চনমনে হয়ে ওঠে যার ফলে চিন্তাশক্তি ও কার্যক্ষমতা বেড়ে যায়। অনেক বিজ্ঞানী আবার মনে করেন, দীর্ঘ দিন স্মৃতিশক্তি অটুট রাখতে চকোলেট দারুণ উপকারী। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, যে সব মহিলা অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় বেশি চকোলেট খান, তাঁরা বুদ্ধিদীপ্ত, হাসিখুশি সন্তানের জন্ম দেন।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে: অন্তঃসত্ত্বাদের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখা ভীষণ জরুরি। এই অবস্থায় উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ভুগলে ডার্ক চকোলেট খেতে পারেন। ডার্ক চকোলেটে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেশিয়াম পাওয়া যায়, যা রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.