Advertisement
০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Working Woman

সংসার এবং অফিস দু’টিই একা হাতে সামলান? কোন কৌশলে নিজেকে সুস্থ রাখবেন মহিলারা?

ঘরে-বাইরে নানা কাজ সামলাতে গিয়ে নিজের দিকে তাকানোর সময় পান না অনেক মহিলাই। রোজের জীবনে কোন নিয়মগুলি মানলে চনমনে থাকবেন?

সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে কর্মরতা মহিলাদের মধ্যে প্রায় ৬৮ শতাংশ মহিলা দৈনন্দিন জীবনে অনিয়মজনিত সমস্যায় ভুগছেন।

সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে কর্মরতা মহিলাদের মধ্যে প্রায় ৬৮ শতাংশ মহিলা দৈনন্দিন জীবনে অনিয়মজনিত সমস্যায় ভুগছেন। ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ ১১:০২
Share: Save:

সংসারে খুঁটিনাটি নজরে রাখা। সংসারের বেশির ভাগ দায়িত্ব সামলানো। সন্তানের শরীরস্বাস্থ্য, পড়াশোনার দিকে খেয়াল রাখা। পরিবারের অন্যান্যদের দেখাশোনা। সেই সঙ্গে রয়েছে কর্মক্ষেত্রে সময়মতো পৌঁছনোর তাড়া। তার পর সারা দিন একের পর এক মিটিং, কাজ তো রয়েছেই। ঘর এবং বাইরে সামলাতে গিয়ে নিজের দিকে তাকানোর সময় পান না অনেক মহিলাই। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সমীক্ষায় প্রতি তিন জন কর্মরত মহিলার মধ্যে এক জনের সমস্যা এরকমই।সংসার এবং চাকরি দু’দিক একসঙ্গে সামলাতে গিয়ে নিজেরে শরীর-স্বাস্থ্যের খেয়াল রাখার ফুরসত পাওয়া যায় না। সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে কর্মরতা মহিলাদের মধ্যে প্রায় ৬৮ শতাংশ মহিলা দৈনন্দিন জীবনে অনিয়মজনিত সমস্যায় ভুগছেন। কেউ মানসিক অবসাদে। কারও ওজন বেড়ে গিয়েছে। কেউ আবার ডায়াবিটিসে জর্জরিত। চিকিৎসকদের মতে, সামান্য সচেতনতা আর স্বাস্থ্যকর অভ্যাসে এত পরিশ্রমের মধ্যেও সুস্থ থাকা সম্ভব। শুধু নিজের জন্য সময় বার করতে হবে। আর রোজের জীবনে মানতে হবে কয়েকটি নিয়ম।

Advertisement
চিকিৎসকদের মতে, সামান্য সচেতনতা আর স্বাস্থ্যকর অভ্যাসে এত পরিশ্রমের মধ্যেও সুস্থ থাকা সম্ভব।

চিকিৎসকদের মতে, সামান্য সচেতনতা আর স্বাস্থ্যকর অভ্যাসে এত পরিশ্রমের মধ্যেও সুস্থ থাকা সম্ভব। প্রতীকী ছবি।

সকালের খাবার যেন বাদ না যায়

দিনের শুরুটা যদি স্বাস্থ্যকর না হয় তবে, সারা দিন চেষ্টা করেও শরীরকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারবেন না। সারা দিন চনমনে থাকতে সকালের পাতে রাখুন স্বাস্থ্যকর কিছু খাবার। গ্রিন টি খেতে পারেন। তার পর ব্রাউন ব্রেড বা ওটস জাতীয় কিছু খান। একটা কোনও মরসুমি ফল রাখুন সকালের পাতে। অফিস দৌড়নোর আগে অনেকেই নাকেমুখে খাবার গুঁজে নেন। এমন করলে হবে না। সময় নিয়ে খেতে বসুন। অল্প খান। কিন্তু ঠিক করে খান। কোনওদিন পোহা, চিঁড়ে বা ডালিয়াও খেতে পারেন। কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার সকালের দিকেই খেয়ে নিন। তবে চেষ্টা করুন রুটির উপর জোর দিতে।

কিছু ক্ষণ শরীরচর্চা করুন

Advertisement

সব কিছু একাহাতে সামলাতে গিয়ে শরীরচর্চার করার সময় পান না অনেকেই। পুষ্টিবিদরা জানাচ্ছেন, স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়ার পাশাপাশি শরীরচর্চা করাও সমান জরুরি। সকাল থেকে উঠেই বাড়ি সামলে অফিস বেরোনোর তাড়া থাকলেও নিজের জন্য ১০ মিনিট সময় বার করে নিন। সেই সময়টায় যোগাসন, প্রাণায়াম করতে পারেন।

পর্যাপ্ত পরিমাণে জল খান

কাজের চাপ থাকলেও বার বার জল খাওয়ার অভ্যাস করুন। শরীর সুস্থ রাখতে জলের বিকল্প নেই। শরীরে জলের ঘাটতি দেখা দিলে অন্যান্য শারীরবৃত্তীয় সমস্যা দেখা দেয়। শত ব্যস্ততার মাঝে পর্যাপ্ত পরিমাণে জল খাওয়া বজায় রাখুন।

পর্যাপ্ত ঘুম জরুরি

শরীর সুস্থ রাখতে এক জন প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষের দিনে অন্তত ৭-৮ ঘণ্টা ঘুম প্রয়োজন। তবে এই ব্যস্ত জীবনে ঘুমের বড়ই অভাব থেকে যায়। ঘুমের ঘাটতি নানা শারীরিক সমস্যার অন্যতম কারণ। পর্যাপ্ত ঘুমোনোর চেষ্টা করুন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.