Advertisement
০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Gun

দশ বছর বয়সি বাচ্চার হাতে বন্দুক দেখে পুলিশি তৎপরতায় বিতর্ক পঞ্জাবে

পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত মান এবং পঞ্জাব সরকার সেই সব গান বাতিল করে দিয়েছেন যেগুলিতে 'বন্দুক' শব্দটির উল্লেখ আছে।

শুধু মাত্র বন্দুকের  ছবির ভিত্তিতে ১৮৮ ধারা প্রয়োগ করা হয়।

শুধু মাত্র বন্দুকের ছবির ভিত্তিতে ১৮৮ ধারা প্রয়োগ করা হয়। প্রতীকী ছবি।

সংবাদ সংস্থা
অমৃতসর শেষ আপডেট: ২৬ নভেম্বর ২০২২ ২১:০৭
Share: Save:

দশ বছরের বাচ্চার হাতে বন্দুক দেখে শুরু হল বিতর্ক। বাচ্চাটির বাবা সমাজমাধ্যমে হাতে এক বন্দুক সহ তাঁর ছেলের একটি ছবি পোস্ট করা মাত্রই শনিবার পঞ্জাব পুলিশের চোখে ধরা পড়ে। ঠিক তার পরেই পুলিশ নিজেই ৪ জন ব্যক্তির নামে এফআইআর দায়ের করে। কোনও তদন্ত না করে, শুধু মাত্র পোস্ট করা ছবির ভিত্তিতে ১৮৮ ধারা প্রয়োগ করা হয়। ঘটনাটি অমৃতসরের এক গ্রামে ঘটেছে।

Advertisement

প্রসঙ্গত, পঞ্জাবের পুলিশ প্রশাসন জনসাধারণকে ৭২ ঘন্টার মধ্যে রাজ্যের মানুষদের সমাজমাধ্যম থেকে বন্দুক এবং হিংসা সংক্রান্ত সব পোস্ট সরাতে নির্দেশ দিয়েছে। শুধু তা-ই নয়, তারা বেশ কিছু ব্যক্তির সমাজমাধ্যমে বন্দুক সর্ম্পকিত পোস্টের ভিত্তিতে এফআইআর দায়ের করেছে। ইতিমধ্যে, পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত মান এবং পঞ্জাব সরকার সেই সব গান বাতিল করে দিয়েছেন যেগুলিতে 'বন্দুক' শব্দটির উল্লেখ আছে।

তবে জানা গিয়েছে, যে বন্দুককে কেন্দ্র করে এত শোরগোল, সেটা আসলে একটি খেলনা বন্দুক ছিল। দশ বছরের বাচ্চাটির বাবা দাবি করেছেন, পুলিশ ফোনে তাঁর সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেছে এবং ভিত্তিহীন এফআইআর দায়ের করেছে। সে জন্য তাঁদের বিভ্রান্ত হতে হয়েছে। জানা গিয়েছে, এই ঘটনার প্রেক্ষিতে শিরোমণি অকালি দলের প্রবীণ নেতা বিক্রম সিংহ মাঝিঠিয়া আপ সরকারের নিন্দা করেছেন।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.