×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ জুন ২০২১ ই-পেপার

বক্সারের পর গাজিপুর, গঙ্গায় ভেসে আসছে পচাগলা দেহ, আতঙ্ক যোগীরাজ্যে, বিতর্কও

সংবাদ সংস্থা
গাজিপুর ১১ মে ২০২১ ১২:২৬


ছবি: এএনআই

প্রতিবেশী বিহারের বক্সারে গঙ্গার পাড়ে ভেসে আসা দেহ নিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়েছিল সোমবার। মঙ্গলবার একই খবর এল বিজেপি শাসিত রাজ্য উত্তরপ্রদেশ থেকে। সেখানেও শেষ কয়েকদিন ধরে গঙ্গায় ভেসে আসছে ‘করোনা রোগী’-র দেহ। পচাগলা দেহ জমা হচ্ছে নদীর পাড়ে। ভারতের করোনা পরিস্থিতির ভয়াবহতা স্পষ্ট হচ্ছে রোজই। স্থানীয়রা মনে করছেন, এগুলি করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে, এমন মানুষের দেহ। শ্মশানে পোড়ানোর স্থান নেই, কাঠের জোগান নেই তেমন, সেই কারণেই গঙ্গায় মৃতদেহ ভাসিয়ে দিচ্ছেন অনেকে। সেই দেহই ভেসে আসছে পাড়ে।

গাজিপুরের জেলাশাসক এমপি সিংহ জানিয়েছেন, ‘‘দেহগুলি কোথা থেকে, কী ভাবে আসছে, সে বিষয়ে তদন্ত করে দেখছে প্রশাসন। ঘটনাস্থলে মঙ্গলবার হাজির হয়েছেন তদন্তকারী অফিসারেরা। তাঁরা বোঝার চেষ্টা করছেন, কোন পতিপথ বেয়ে দেহ এসে উঠছে পাড়ে।

বক্সারে যে দেহগুলি পাওয়া গিয়েছিল, সোমবার তা নিয়েও সন্দেহ প্রকাশ করেছিল বিহারের প্রশাসন। একাংশের দাবি ছিল, সম্ভবত উত্তরপ্রদেশ থেকে মৃতদেগুলি ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছে, আর সেগুলিই এসে ঠেকেছে বিহারে। যদিও সে বিষয়ে স্পষ্ট কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি। কিন্তু নদীর পাড়ে তৈরি হওয়া শ্মশানগুলিতে উত্তরভারত জুড়ে একই ছবি দেখা যাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছিলেন অনেকে। তাঁরা বলছিলেন, করোনায় মৃত্যুর হার এতই বেড়ে গিয়েছে শ্মশানেও বৈদ্যুতিক বা কাঠের চুল্লি নেই দাহ করার। তাই অনেকেই গঙ্গায় দেহ ভাসিয়ে দিচ্ছেন।

Advertisement
Advertisement