×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২১ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

‘মৎস্য মন্ত্রক’ বিতর্কে এবার রাহুলকে কটাক্ষ অমিতের, বিদেশে ছুটি কাটানো নিয়ে খোঁচা

সংবাদ সংস্থা
পুদুচেরি ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৭:০৪
অমিত শাহ, রাহুল গাঁধী।

অমিত শাহ, রাহুল গাঁধী।
পিটিআই।

ভোটের বাজারে কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গাঁধীকে আক্রমণ করার কোনও সুযোগই হাতছাড়া করতে চান না বিজেপি নেতারা। রবিবারও সেই ‘রীতি’ মেনে ‘মৎস্য মন্ত্রক’ বিতর্কে তাঁকে কটাক্ষ করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল পুদুচেরিতে ভোট প্রচারে গিয়ে রাহুলকে আক্রমণ করেন তিনি। কটাক্ষ করে বলেন, “২ বছর আগে যখন মৎস্য মন্ত্রক তৈরি হয়, তখন রাহুলভাই আপনি ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন।”

আগামী ৬ এপ্রিল বিধানসভা নির্বাচন ৩০ আসনের পুদুচেরিতে। গত নির্বাচনে একটিও আসন না পাওয়া বিজেপি এ বার ক্ষমতা দখলের লক্ষ্যে ঝাঁপাচ্ছে। আর ক্ষমতা ধরে রাখতে লড়াইয়ে নেমে পড়েছে কংগ্রেসও।

তামিলনাড়ু কেরল পুদুচেরির মতো উপকূলবর্তী রাজ্যের একটা বড় অংশের মানুষ মৎস্যজীবী। তাঁদের মন জয় করতে রাহুল দাবি করেন, এই মৎস্যজীবীরা ‘সমু্দ্রের কৃষক’। এঁদের সমস্যা দেখার জন্য মৎস্য দফতর নয়, প্রয়োজন মৎস্য মন্ত্রক।

Advertisement

রাহুলের এই মন্তব্যের পরই তাঁকে আক্রমণ করতে ময়দানে নেমে পড়েন বিজেপি নেতারা। বিষয়টি নিয়ে মুখ খোলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও। তাঁর মন্তব্য, ২০১৯ সালেই মৎস্য মন্ত্রক তৈরি হয়েছে কিন্তু বিষয়টি রাহুল গাঁধী না জানায় তিনি ‘বিস্মিত’।

রাহুলকে কটাক্ষ করার তালিকায় সাম্প্রতিক সংযোজন অমিত শাহ। রাহুলের বিদেশে ছুটি কাটাতে যাওয়াকে ইঙ্গিত করে কটাক্ষ করেন অমিত। সেই সঙ্গে তিনি বলেন, “পুদুচেরির মানুষকে আমি প্রশ্ন করতে চাই, যে দলের নেতা যিনি আবার চতুর্থ বার লোকসভার সদস্য, তিনি জানেনই না ২ বছর আগে তৈরি হয়েছিল মৎস্য মন্ত্রক। এমন দল কি পুদুচেরির মানুষের উন্নয়ন করতে পারবে?”

তবে মৎস্য মন্ত্রক বিতর্কে শুক্রবারই ব্যাখ্যা দেয় কংগ্রেস। কংগ্রেসের দাবি, রাহুল মৎস্য দফতরকে মন্ত্রকের স্তরে উন্নীত করার কথা বলেছেন।

Advertisement