Advertisement
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Tripura Assembly Election 2023

ত্রিপুরা, মেঘালয় এবং নাগাল্যান্ডে ফেব্রুয়ারিতে দু’দিনে বিধানসভা ভোট, গণনা ২ মার্চ

২০১৮ সালের বিধানসভা ভোটে আড়াই দশকের বাম শাসনের ইতি টেনে ত্রিপুরায় বিজেপি ক্ষমতায় এসেছিল। মেঘালয়ে কংগ্রেসকে হারিয়ে এনপিপি এবং নাগাল্যান্ডে এনপিএফ-কে হারিয়ে এনডিপিপি ক্ষমতা দখল করে।

সাংবাদিক বৈঠকে ত্রিপুরা, মেঘালয় এবং নাগাল্যান্ডে বিধানসভা ভোটের দিন ঘোষণা করলেন মুখ্যনির্বাচন কমিশনার রাজীব কুমার।

সাংবাদিক বৈঠকে ত্রিপুরা, মেঘালয় এবং নাগাল্যান্ডে বিধানসভা ভোটের দিন ঘোষণা করলেন মুখ্যনির্বাচন কমিশনার রাজীব কুমার। ছবি: সংগৃহীত।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ১৮ জানুয়ারি ২০২৩ ১৫:১৮
Share: Save:

উত্তর-পূর্বাঞ্চলের তিন রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের দিন ঘোষণা করল নির্বাচন কমিশন। এ বারের তালিকায় রয়েছে ত্রিপুরা, নাগাল্যান্ড ও মেঘালয়। তিন রাজ্যেই রয়েছে ৬০টি করে বিধানসভা আসন।

বুধবার দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যনির্বাচন কমিশনার রাজীব কুমার জানান, ত্রিপুরায় ভোট হবে আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি। পাশাপাশি, নাগাল্যান্ড ও মেঘালয়ে নির্বাচন হবে ওই মাসেরই ২৭ তারিখে। তিন রাজ্যে ভোট দু’দিনে হলেও ভোট গণনা কিন্তু একই দিনে আগামী ২ মার্চ হবে।

২০১৮ সালের বিধানসভা ভোটে উত্তর-পূর্ব ভারতের বাঙালি সংখ্যাগরিষ্ঠ রাজ্য ত্রিপুরায় ২৫ বছরের বাম শাসনের ইতি টেনে ক্ষমতায় এসেছিল বিজেপি এবং তার সহযোগী জনজাতি দল আইপিএফটি। রাজ্যের ৬০টি আসনের মধ্যে বিজেপি ৩৬ এবং আইপিএফটি ৮টিতে জেতে। মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের নেতৃত্বে লড়ে সিপিএম পায় মাত্র ১৬টি আসন।

এ বার ত্রিপুরায় জনজাতি অধ্যুষিত এলাকায় আইপিএফটিকে পিছনে ফেলে উঠে এসেছে তিপ্রা মথা। অন্য দিকে, রাজধানী আগরতলা-সহ বাঙালি গরিষ্ঠ বেশ কিছু এলাকায় বিজেপির সঙ্গে বাম এবং কংগ্রেসের তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতার সম্ভাবনা রয়েছে। ভোটের লড়াইয়ে রয়েছে তৃণমূলও। প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের বিধানসভা ভোটে একটি আসনে না জিতলেও ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটের হিসাবে প্রায় ২০টি আসনে এগিয়ে রয়েছে কংগ্রেস।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE