Advertisement
২৭ জানুয়ারি ২০২৩
Indian Railways

নতুন সময়সূচি প্রকাশ করছে ভারতীয় রেল, বদলে যাবে একাধিক ট্রেনের যাতায়াতের সময়

দেশে মোট তিন হাজার ২৪০টি মেল ও এক্সপ্রেস ট্রেন চালানো হয়। মোট দু’কোটি ২৩ লক্ষ মানুষ প্রতি দিন ট্রেনে যাতায়াত করেন। ২০২১ থেকে রেল ৬৫ হাজারের বেশি বিশেষ (স্পেশাল) ট্রেন চালিয়েছে।

রেলের সময়সূচিতে বদল।

রেলের সময়সূচিতে বদল। —ফাইল ছবি

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ০১ অক্টোবর ২০২২ ১১:৪০
Share: Save:

ট্রেনের নতুন সময়সূচি প্রকাশ করছে ভারতীয় রেল। শনিবার প্রকাশিত হবে রেলের ‘অল ইন্ডিয়া রেলওয়ে টাইম টেবিল’। এর নাম দেওয়া হয়েছে ‘ট্রেনস অ্যাট এ গ্লানস্’ বা ট্যাগ।

Advertisement

ভারতীয় রেলের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে (www.indianrailways.gov.in) নতুন এই সময়সূচি পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছে রেল। তাদের পরিসংখ্যান বলছে, দেশে মোট তিন হাজার ২৪০টি মেল ও এক্সপ্রেস ট্রেন চালানো হয়। সেগুলির মধ্যে আছে বন্দে ভারত এক্সপ্রেস, গতিমান এক্সপ্রেস, রাজধানী এক্সপ্রেস, শতাব্দী এক্সপ্রেস, হমসফর এক্সপ্রেস, তেজস এক্সপ্রেস, দুরন্ত এক্সপ্রেস, অন্ত্যোদয় এক্সপ্রেস, গরিব রথ এক্সপ্রেস, সম্পর্ক ক্রান্তি এক্সপ্রেস, যুব এক্সপ্রেস, উদয় এক্সপ্রেস, জনশতাব্দী এক্সপ্রেসের মতো ট্রেন।

এ ছাড়াও, প্রায় তিন হাজার প্যাসেঞ্জার ট্রেন চালায় রেল। শহরতলিতে চলে আরও পাঁচ হাজার ৬৬০টি ট্রেন। দেশের মোট দু’কোটি ২৩ লক্ষ মানুষ প্রতি দিন ট্রেনে যাতায়াত করেন। যাত্রীদের বাড়তি চাপ সামাল দিতে ২০২১ থেকে রেল ৬৫ হাজারের বেশি স্পেশাল (বিশেষ) ট্রেন চালাচ্ছে রেল।

দেশে এই মুহূর্তে দু’টি বন্দে ভারত এক্সপ্রেস ট্রেন চলে। তৃতীয়টির উদ্বোধন হয়েছে শুক্রবার। শনিবার থেকে তা চালু হবে। এই ট্রেনের গন্তব্য মুম্বই থেকে গান্ধীনগর। বন্দে ভারতকেই আপাতত দেশের দ্রুততম ট্রেন হিসাবে দাবি করা হয়। এ ছাড়া, ভারতে তেজস এক্সপ্রেসের সাত জোড়া ট্রেন চলে।

Advertisement

ভারতীয় রেলে ট্রেনের অপ্রতুলতা না থাকলেও সময়ানুবর্তিতা নিয়ে যাত্রীদের অভিযোগ দীর্ঘ দিনের। বেশির ভাগ ট্রেনই নির্ধারিত সময় অনুযায়ী যাতায়াত করে না বলে অভিযোগ করেন যাত্রীরা। রেল আধিকারিকদের দাবি, এই সমস্যা মেটাতে ট্রেনের সময়সূচিতে কিছু পরিবর্তন ও নতুন সংযোজন আনা হচ্ছে। ভারতীয় রেল জানিয়েছে, নতুন সময়সূচিতে কোভিড-পর্বের আগের তুলনায় ট্রেনের সময়ানুবর্তিতা ৯ শতাংশ বাড়বে।

রেলের নতুন সময়সূচি ‘ট্রেনস অ্যাট এ গ্লানস্’ ই-বুক হিসাবেও রেলের ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করা যাবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.