Advertisement
০৩ মার্চ ২০২৪
Bhagat Singh Koshyari

Maharashtra Politics: ‘গুজরাতি, রাজস্থানিরা না থাকলে...’, বিতর্ক মহারাষ্ট্রের রাজ্যপালের মন্তব্যে, ক্ষুব্ধ শিবসেনা

শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউথ বলেন, ‘‘রাজ্যপাল মরাঠি ভাবাবেগকে আঘাত করেছেন। আশা করব মুখ্যমন্ত্রী একনাথ শিন্ডে এ বার প্রতিবাদ করবেন।’’

কোশিয়ারি এবং উদ্ধব।

কোশিয়ারি এবং উদ্ধব। ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই শেষ আপডেট: ৩০ জুলাই ২০২২ ০৯:১০
Share: Save:

এক মাস ধরে ‘দু’জনের সরকার’ চলছে মহারাষ্ট্রে। শিন্ডেসেনা এবং বিজেপির অন্দরে টানাপড়েনের জেরেই একনাথ শিন্ডে-দেবেন্দ্র ফডণবীস মন্ত্রিসভার সম্প্রসারণ হয়নি বলে অভিযোগ তুলতে শুরু করেছে বিরোধীরা। তারই মধ্যে রাজ্যপাল ভগৎ সিংহ কোশিয়ারির মন্তব্যের জেরে নতুন করে বিতর্ক ছড়াল মরাঠা রাজনীতিতে।

শুক্রবার একটি কর্মসূচিতে রাজ্যপাল কোশিয়ারি বলেন, ‘‘গুজরাতি এবং রাজস্থানিরা চলে গেলে মুম্বই আর দেশের বাণিজ্যিক রাজধানী থাকবে না।’’ তাঁর এই মন্তব্যের পরেই নতুন করে বিতর্ক শুরু হয়েছে উদ্ধব ঠাকরের ঘনিষ্ঠ শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউথ বলেন, ‘‘রাজ্যপাল মরাঠি ভাবাবেগকে আঘাত করেছেন। আশা করব মুখ্যমন্ত্রী একনাথ শিন্ডে এ বার প্রতিবাদ করবেন।’’

প্রয়াত বালাসাহেব ঠাকরের জমানা থেকেই মুম্বইয়ে গুজরাতি এবং রাজস্থানি (মারওয়াড়ি) ব্যবসায়ীদের ‘আর্থিক আগ্রাসনের’ বিরুদ্ধে সরব শিবসেনা। এই পরিস্থিতিতে উত্তরাখণ্ডের প্রাক্তন বিজেপি নেতা কোশিয়ারির মন্তব্যকে হাতিয়ার করে উদ্ধব শিবির ফের মরাঠি ‘খণ্ড জাতীয়তাবাদ’ উস্কে দিতে চাইছে বলে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের একাংশ মনে করছেন। শুধু শিবসেনা নয়, সচিন সবন্তের মতো মহারাষ্ট্র কংগ্রেসের প্রথম সারির নেতাও কোশিয়ারির মন্তব্যের বিরোধিতা করেছেন।

এর মধ্যে মহারাষ্ট্র মন্ত্রিসভার সম্প্রসারণ না হওয়ার ঘটনা নিয়েও সরব হয়েছে বিরোধী শিবির। গত ৩০ জুন মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিয়েছিলেন শিন্ডে। উপমুখ্যমন্ত্রী পদে বিজেপি নেতা ফডণবীস। কিন্তু এক মাসেও মন্ত্রিসভা গঠন না হওয়ায় সরকারের বিভিন্ন দফতরে কাজের গতি শ্লথ হয়ে পড়েছে বলে অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE