Advertisement
২১ জুলাই ২০২৪
Drone

Pakistan Drone: রাতের অন্ধকারে জম্মুর আকাশে পাক ড্রোন! গুলি চালিয়ে তাড়াল বিএসএফ

বিএসএফ সূত্রের খবর, শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টা নাগাদ জম্মুর কানাচক এলাকায় সীমান্ত পেরিয়ে ভারতীয় ভূখণ্ডের অন্দরে পাক ড্রোনটি ঢুকে পড়েছিল।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

সংবাদ সংস্থা
জম্মু শেষ আপডেট: ২৩ জুলাই ২০২২ ১১:১৩
Share: Save:

জম্মু ও কাশ্মীর সীমান্তের আকাশে ফের পাক ড্রোন। শুক্রবার রাতে জম্মুর কানাচক এলাকার আকাশে ড্রোন উড়তে দেখেই গুলি চালায় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। তবে সেটি ধ্বংস হয়েছে কি না, তা নিয়ে নিশ্চিত নন বিএসএফ কর্তারা। প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে, বিএসএফের উপস্থিতি টের পেয়েই সীমান্তের ওপারের পাক ‘অপারেটর’ সেটিকে ফিরিয়ে নিয়ে যান। শনিবার সকাল থেকে এলওসি-তে ড্রোনের সন্ধানে তল্লাশি অভিযান শুরু করেছে বিএসএফ।

বিএসএফ সূত্রের খবর, আন্তর্জাতিক সীমান্ত পেরিয়ে ভারতীয় ভূখণ্ডের অন্দরে পাক ড্রোনটি ঢুকে পড়েছিল। ড্রোনের আলো দেখা মাত্রই গুলি চালাতে শুরু করেন টহলদার জওয়ানেরা। এর আগে গত ১৬ জুলাই রাতে পুঞ্চের কৃষ্ণাঘাঁটি সেক্টরে একই ভাবে একটি পাক ড্রোন নিয়ন্ত্রণরেখা (এলওসি) পেরিয়ে ঢুকে পড়েছিল। কিন্তু সতর্ক বিএসএফ বাহিনী গুলি ছুড়তে শুরু করায় সেটি পালিয়ে যায়। ওই ড্রোনের মাধ্যমে পাক মদতেপুষ্ট জঙ্গিদের অস্ত্র পাঠানো হচ্ছিল বলে গোয়েন্দা আধিকারিকদের ধারণা।

প্রসঙ্গত, গত তিন বছর ধরে পঞ্জাব ও জম্মু সীমান্তে পাক ড্রোনের আনাগোনা বেড়েছে। প্রাথমিক ভাবে গোয়েন্দারা ভেবেছিলেন, সীমান্তে নজরদারির জন্য পাকিস্তান ওই ড্রোনগুলি ব্যবহার করছে। কিন্তু ২০২০-র গোড়ায় ভেঙে পড়া ড্রোন থেকে অস্ত্র ও বিস্ফোরক উদ্ধারের পরে বোঝা যায়, পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই কাশ্মীরি এবং খলিস্তানি জঙ্গিদের মদত দিতে ড্রোনের মাধ্যমে অস্ত্র, মাদক ও বিস্ফোরক পাঠানোর ছক কষেছে। তার পরেই সীমান্তে ড্রোনের উপর নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE