• শ্রাবণী বসু
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রোমানিয়া থেকে লন্ডনে ‘জমি-সেনা’

london
ছবি সংগৃহীত।

ব্রেক্সিটের পক্ষে ভোট দিলেও ব্রিটেনের চোখে এত দিন ওঁরা ছিলেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের ‘অদক্ষ’ কর্মী। ওঁদের ব্রিটেনে থাকতে দেওয়ার বিরুদ্ধে দেশের সংবাদমাধ্যমেও চলেছে প্রচার। গত কাল থেকে ছবিটা বদলে গিয়েছে। 

রোমানিয়া থেকে চার্টার্ড বিমানে সেখানকার ১৫০ জন কর্মী এসেছেন ব্রিটিশ কৃষকদের সাহায্য করতে। এই গরমের মরসুমি ফল আর শাকসব্জি খেত থেকে তোলার জন্য করোনা-সঙ্কটের মধ্যে ওঁরাই এখন ত্রাতা। যে সব দৈনিক এক দিন রোমানিয়ার নাগরিকদের ঠাঁই দেওয়ার বিরুদ্ধে প্রচার চালিয়েছে, এখন সেগুলোর পাতায় ওই ১৫০ কর্মীর ছবি। তার সঙ্গে লেখা, ‘ওঁরা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’ এই ছবি এখন সামাজিক মাধ্যমেও ভাইরাল। রোমানিয়ার তরুণ দলটি মাস্ক আর গ্লাভস পরে লন্ডনের প্রায় ফাঁকা স্ট্যানস্টেড বিমানবন্দর থেকে পারস্পরিক দূরত্ব বজায় রেখে পাঁচ জন করে বেরিয়ে আসেন। স্বাগত জানিয়ে পুলিশ তাঁদের বাসে করে নিয়ে যায় ইস্ট অ্যাংলিয়ায় (ইংল্যান্ডের পূর্বে) ৭ হাজার হেক্টরের বিরাট কৃষিক্ষেত্রে। সোমবার থেকে সেখানে শস্য তোলার কাজ শুরু হবে। 

ব্রিটিশ কৃষকদের কাছে এখন ওঁরা ‘জমি-সেনা।’ লকডাউনের মধ্যে ফসল যাতে পড়ে থেকে নষ্ট না হয়, তার জন্য এই ব্যবস্থা। এই কাজে প্রতি বছর বিপুল সংখ্যক কর্মী প্রয়োজন হয়। কিন্তু এ বার প্রায় গোটা ইউরোপ লকডাউনে থাকায় শস্য নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছিল। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন