• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সবাইকে টিকা, মোদীর সুরেই সৌদির রাজা

modi sau
—ছবি সংগৃহীত

উন্নত দেশগুলির পাশাপাশি উন্নয়নশীল এবং দরিদ্র দেশগুলিও যাতে কোভিডের টিকা পায়, তার জন্য আজ ডাক দেওয়া হল জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনের (ভিডিয়ো মাধ্যমে) প্রথম দিনে। আজকের এই সম্মেলনের আয়োজক সৌদি আরবের রাজা সলমন বিন আব্দুল আজিজ তাঁর উদ্বোধনী বক্তৃতায় এ কথা জানিয়েছেন। তাঁর সঙ্গে সুর মিলিয়েছে চিনও। সাউথ ব্লক সূত্রের বক্তব্য, এ ব্যাপারে দক্ষিণ আফ্রিকাকে সঙ্গে নিয়ে প্রথম আন্তর্জাতিক স্তরে প্রস্তাব এনেছিল ভারতই। আজ তাঁর উদ্বোধনী বক্তৃতায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জনিয়েছেন, বিশ্বের সবার কাছে যাতে প্রযুক্তির সুফল পৌঁছয়, তার জন্য জি-২০কে সক্রিয় হতে হবে।    

তবে আজ আলাদা করে পেটেন্ট প্রত্যাহারে বিষয়টি নিয়ে সরব হননি প্রধানমন্ত্রী। বিদেশ মন্ত্রকের পক্ষ থেকে বিবৃতি দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনী বক্তৃতা প্রসঙ্গে বলা হয়েছে, ‘দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরে কোভিডকে মানুষের সামনে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হিসেবে বর্ণনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, জি-২০ ভুক্ত রাষ্ট্রগুলির পক্ষ থেকে এমন পদক্ষেপ করতে হবে, যা কেবল মাত্র বিশ্ব অর্থনীতি, কর্মসংস্থান বা বাণিজ্যকেই টেনে তুলবে না, পৃথিবী নামক গ্রহকেও সংরক্ষণ করবে ভবিষ্যতের জন্য। 

বিদেশ মন্ত্রকের বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ‘‘প্রধানমন্ত্রী তাঁর উদ্বোধনী বক্তৃতায় করোনা পরবর্তী বিশ্বে চারটি বিষয়ের দিকে নজর দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। প্রথমত, একটি বিস্তৃত ট্যালেন্ট পুল তৈরি করা। দ্বিতীয়ত, সমাজের সমস্ত স্তরে যাতে প্রযুক্তির সুফল পৌঁছতে পারে 

তার ব্যবস্থা করা। তৃতীয়ত, প্রশাসনের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা আনা এবং চতুর্থ বিষয়টি হল, পৃথিবী নামক গ্রহটিকে বিশ্বাসের সঙ্গে, মমতার সঙ্গে দেখা।’’

আজকের এই আন্তর্জাতিক বৈঠকের আয়োজক সৌদি আরবের রাজার কথায়, “যদিও আমরা কোভিডের টিকা আবিষ্কারের প্রশ্নে আশাবাদী, কিন্তু সমস্ত মানুষের কাছে সাধ্যমতো দামে যাতে তা পৌঁছয়, তা নিশ্চিত করতে হবে।“  

কোভিডের টিকা যাতে বিশ্বের বিভিন্ন উন্নয়নশীল মানুষের কাছে বিনা প্রতিবন্ধকতায় পৌঁছয়, তার জন্য আজ জি-২০ বৈঠকে সওয়াল করেন চিনের প্রেসিডেন্ট শি চিনফিং-ও। কূটনৈতিক সূত্রের বক্তব্য, কয়েক দিন আগেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ব্রিকস গোষ্ঠীভুক্ত দেশগুলির বৈঠকে দাবি তুলেছিলেন, সমস্ত দেশের মানুষ যাতে সহজেই কোভিডের টিকা পেতে পারে, তার জন্য এটির পেটেন্ট রদ করা হোক। তা হলে টিকার দাম কমবে। সূত্রের খবর, এই বিষয়টি নিয়ে দিল্লির পাশেই রয়েছে চিন। আমেরিকা এবং ইউরোপের দেশগুলির পক্ষ থেকে মোদীর এই প্রস্তাব নিয়ে খুব একটা উদ্যম এখনও পর্যন্ত দেখা যায়নি। এমনকি বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থায় এই বিষয়ে যে প্রস্তাব ভারত এবং দক্ষিণ আফ্রিকা দিয়েছে, তা নিয়ে গা করেনি আমেরিকা।

আজ জি-২০ বৈঠকের প্রথম দিনে শি চিনফিং তাঁর বক্তৃতায় বলেছেন, “আমাদের উচিত, যার যার নিজের দেশে এই অসুখটিকে নিয়ন্ত্রণে আনা এবং সেই অভিজ্ঞতাকে অন্য দেশের সঙ্গে ভাগ করে নিয়ে সহযোগিতার মাধ্যমে পরস্পরকে সাহায্য করা।“ 

তাঁর কথায়, “কোভিড এর টিকা নিয়ে আন্তর্জাতিক সহযোগিতাকে সক্রিয় ভাবে সমর্থন করে চিন। আমরা কোভ্যাক্স-এ যোগ দিয়েছি।“   পাশাপাশি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কথায়, “যে দেশেরই প্রয়োজন হবে, আমরা টিকা সরবরাহ করতে প্রস্তুত।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন