ফের শিখের উপর হামলা মার্কিন মুলুকে। ঘটনাটি ঘটেছিল গত সোমবার, ক্যালিফর্নিয়ার ম্যানটেকা শহরে। জানা গিয়েছে, পুলিশ প্রধানের ছেলে অভিযুক্তদের এক জন। তবে সে কয়েক বছর আগেই ঘর ছেড়েছিল। অভিযুক্ত দু’জনকেই গ্রেফতার করা হয়েছে। 

সোমবার ভোর ছ’টা নাগাদ ম্যানটেকার রাস্তায় ৭১ বছর বয়সি বৃদ্ধ সাহিব সিংহ নটের উপরে হামলা চালায় বছর আঠারোর টাইরন। তার সঙ্গে ছিল বছর ষোলোর আর এক কিশোর। দু’জনে নটকে মারধর করে ডাকাতির চেষ্টা করে। অভিযুক্তদের ধরতে সাধারণ মানুষের সাহায্য চেয়েছিল পুলিশ। একাধিক প্রত্যক্ষদর্শী এগিয়ে আসেন। পুলিশ জানিয়েছে, তাঁদের বয়ানের ভিত্তিতেই দ্রুত গ্রেফতার করা সম্ভব হয়েছে দুই অভিযুক্তকে। আজ জানা যায়, ইউনিয়ন সিটির পুলিশ প্রধান ড্যারিল ম্যাকঅ্যালিস্টারের ছেলে টাইরন।

নজরদারি ক্যামেরাতে ধরা পড়েছে, রাস্তার ধার দিয়ে একাই হাঁটছিলেন নট। উল্টো দিক থেকে দু’টি ছেলে আসছিল। তারা প্রথমে প্রৌঢ়ের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করে। তার পরেই হঠাৎ নটের পেটে লাথি মারতে শুরু করে দু’জন। পড়ে যান তিনি। পাগড়ি খুলে যায়। তার পরেও লাথি মারা থামেনি। রাস্তায় পড়ে কাতরাতে থাকেন বৃদ্ধ। কয়েক সেকেন্ড পরে এক জন ফিরে এসে ফের তিন বার লাথি মারে নটকে। তারপর তাঁর গায়ে থুতু ছিটিয়ে চলে যায়। 

ঘটনার পরে পুলিশ দফতরের নিজস্ব ফেসবুক পেজে পুলিশ-প্রধান ম্যাকঅ্যালিস্টার লিখেছেন, এ ধরনের বীভৎস অপরাধে তাঁর নিজের ছেলেই অভিযুক্ত জানতে পেরে যারপরনাই বিব্রত বোধ করছেন তিনি। জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন ধরে পরিবারের সঙ্গে কোনও যোগাযোগ নেই টাইরনের। ম্যাকঅ্যালিস্টার বলেছেন, ‘‘ভাষায় প্রকাশ করতে পারব না এই ঘটনায় কতটা খারাপ লেগেছে আমার স্ত্রী ও মেয়েদের। ছেলেমেয়েদের এই শিক্ষা দিইনি আমি।’’ 

গত ৩১ জুলাই সুরজিৎ মালহি নামে এক শিখ ব্যক্তির উপরে হামলা চালায় কিছু দুষ্কৃতী। চিৎকার করে বলে, ‘‘নিজের দেশে চলে যাও!’’

 

সারা বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা নিয়ে বাংলায় খবর পেতে চোখ রাখুন আমাদের আন্তর্জাতিক বিভাগে।