ব্রিটিশ পুলিশের কাছে ফোন আসে শনিবার রাতে। সেই ফোন পেয়ে দক্ষিণ লন্ডনের অদূরে ক্রোইডন এলাকার একটি আবাসনের কাছে পৌঁছয় পুলিশ। সেখানে গিয়ে তারা দেখে, এক গর্ভবতী মহিলা ছুরিকাহত হয়ে পড়ে রয়েছেন। ওই মহিলার বাচ্চাকে বাঁচানোর জন্য প্যারামেডিক পদ্ধতিতে তাঁর সন্তানের জন্ম দেওয়া হয়।

তার পরেই হার্ট অ্যাটাক হয়ে মারা যান ওই মহিলা। আর জন্ম নেওয়ার পর ওই নবজাতককে নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে সে। তবে জন্ম নেওয়া নবজাতকের ছেলে না মেয়ে, তা জানা যায়নি।

মৃত ২৬ বছর বয়সী ওই মহিলার নাম কেলি মেরি ফবরেলে। তিনি প্রায় ৮ মাসের গর্ভবতী ছিলেন বলে পুলিশের দেওয়া বিবৃতিতে জানানো হয়েছে। লন্ডন পুলিশের ডিটেকটিভ চিফ ইনস্পেকটর মিক নর্ম্যান বলেছেন, ‘‘ভয়ঙ্কর এই ঘটনায় তরুণী মা মারা গিয়েছেন এবং তাঁর শিশুটির অবস্থাও খারাপ।’’

এই ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ২৯ বছরের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ছাড়াও ৩৭ বছরের এক ব্যক্তিকেও পুলিশ গ্রেফতার করেছে। যদিও এই দু’জন ব্যক্তির নাম এখনও প্রকাশ করা হয়নি পুলিশের তরফে। কিন্তু কেন গর্ভবতী ওই মহিলাকে খুন হতে হল তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।  

আরও পড়ুন: যেন হ্যামলিনের বাঁশিওয়ালা! এঁর স্যাক্সোফোনের সুরে পালে পালে এসে জড়ো হয় গরু

আরও পড়ুনমায়ের দুরন্ত রিফ্লেক্স! অল্পের জন্য দুর্ঘটনা থেকে বাঁচালো শিশুকে