• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রাষ্ট্রপুঞ্জের ক্ষমতা খর্ব হচ্ছে, সাবধানে চলুন, আমেরিকার ‘মাসুদ আজহার’ প্রস্তাবে ফুঁসে উঠল চিন

Masood Azhar
জইশ-ই-মহম্মদ প্রধান মাসুদ আজহার। —ফাইল চিত্র

মাসুদ আজহার নিয়ে ফের স্বমূর্তিতে চিন। জইশ-ই-মহম্মদ প্রধানকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী ঘোষণার জন্য রাষ্ট্রপুঞ্জে নতুন করে তোড়জোড় শুরু হতেই ফুঁসে উঠল বেজিং। তাদের হুঁশিয়ারি, রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদের ক্ষমতা খর্ব করা হচ্ছে। শুধু তাই নয়, আমেরিকা, ফ্রান্স ইংল্যান্ডের এই প্রচেষ্টা এই ইস্যুকে আরও জটিল করে দিচ্ছে বলেও মত চিনের।

রাষ্ট্রপুঞ্জে মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী ঘোষণার চেষ্টা হয়েছে বেশ কয়েক বার। প্রস্তাব আনা হয়েছে। কিন্তু বার বার তা আটকে গিয়েছে চিনের ভেটোয়। পুলওয়ামায় জঙ্গি হানার পর ফের নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাব আনা হয় দু’সপ্তাহ আগে। কিন্তু তাতেও আগের মতোই কার্যত ভেটো দিয়ে সেই প্রস্তাব আটকে দিয়েছে চিন। তাই এ বার ব্রিটেন ও ফ্রান্সের সক্রিয় সহযোগিতায় নতুন করে খসড়া প্রস্তাব তৈরি করেছে আমেরিকা। বুধবারই সেই খসড়া প্রস্তাব নিরাপত্তা পরিষদের ১৫টি সদস্য রাষ্ট্রের সম্মতির জন্য আনা হয়েছে।

আর হোয়াইট হাউসের নতুন এই তৎপরতাতেই বেজায় চটেছে শি চিনফিং সরকার। চিনের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র গেং শুয়াং সংবাদ মাধ্যমে বলেছেন, ‘‘এই ইস্যুতে (মাসুদ আজহার) যে আলোচনা ও পারস্পারিক সহযোগিতার ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হয়েছিল রাষ্ট্রপুঞ্জ, এটা তার পরিপন্থী। এতে রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদের সন্ত্রাসবিরোধী কমিটির ক্ষমতা খর্ব করা হচ্ছে। এই প্রস্তাব ইস্যুকে আরও জটিল করে তুলছে। আমরিকাকে আমাদের আর্জি, বিষয়টি খুব সাবধানে মোকাবিলা করুন এবং জোর করে এই প্রস্তাব পেশ করা থেকে বিরত থাকুন।’’

আরও পডু়ন: দেশের কোথাও জঙ্গি ঘাঁটি নেই! ভারতের ডসিয়েরের জবাব দিল পাকিস্তান

আরও পড়ুন: আর আবর্জনা নয়, আর্জি আমেরিকার, ভয়ঙ্কর ট্র্যাফিক জ্যাম মহাকাশে!

প্রস্তাবে কী রয়েছে? মার্কিন প্রশাসন সূত্রে খবর, চিনকে এড়িয়ে সরাসরি মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী ঘোষণা করা অদূর ভবিষ্যতে কার্যত অসম্ভব। তাই এ বার অন্য পন্থা নিয়েছে আমেরিকা। নয়া এই প্রস্তাবে মাসুদ আজহারের উপর অস্ত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি হবে। নিষিদ্ধ করা হবে অন্য দেশে যাওয়া। একই সঙ্গে সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হবে। কিন্তু এই প্রস্তাবের ক্ষেত্রেও যে তাদের অবস্থান বদল হবে না, তা স্পষ্ট করে দিল বেজিং।

দিল্লি দখলের লড়াইলোকসভা নির্বাচন ২০১৯ 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন