• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি থেকে আমেরিকায় টিকটক নিষিদ্ধ, নির্দেশ ট্রাম্পের

DONALD TRUMP
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। -ফাইল ছবি।

আগামী দেড় মাসের মধ্যে চিনা সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ ‘টিকটক’ আমেরিকায় পুরোপুরি নিষিদ্ধ করা হবে। তার পর আমেরিকায় থেকে কেউই আর টিকটক ও তার স্বত্ত্বাধিকারী সংস্থা ‘বাইটড্যান্স’-এর সঙ্গে কোনও যোগাযোগ রাখতে পারবেন না। কোনও মার্কিন সংস্থার সঙ্গেও কোনও রকম ব্যবসায়িক লেনদেন করতে পারবে না টিকটক।

বৃহস্পতিবার এক সরকারি নির্দেশে এ কথা জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ওই নির্দেশে ট্রাম্প বলেছেন, ‘‘দেশের নিরাপত্তার সুরক্ষায় টিকটক ও তার স্বত্ত্বাধিকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেবে আমেরিকা।’’

টিকটক-এর স্বত্ত্বাধিকারী সংস্থা বাইটড্যান্স-এর আমেরিকায় সদর দফতর রয়েছে দক্ষিণ ক্যালিফোর্নিয়ায়।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নির্দেশে স্পষ্টই বলা হয়েছে, ‘‘মার্কিন মুলুকে বসবাসকারীদের কেউই আগামী সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি থেকে বাইটড্যান্স-এর সঙ্গে কোনও সম্পর্ক রাখতে পারবেন না। কোনও রকম ব্যবসায়িক লেনদেনও করা যাবে না।’’ এও উল্লেখ করা হয়েছে, মার্কিন মুলুকে বসবাসকারীদের যাবতীয় গোপনীয় তথ্যাদি, ব্যবসা, বাণিজ্য ও তথ্যপ্রযুক্তির সুরক্ষার জন্যই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: ‘রামজন্মভূমি মুক্ত হল’, ১৫ অগস্টের সঙ্গে তুলনা টানলেন মোদী

আরও পড়ুন: নবযুগের শুরু, বললেন মোহন ভাগবত, রুপোর ইট গেঁথে সূচনা রামমন্দিরের

মার্কিন প্রেসিডেন্টের নির্দেশে জানানো হয়েছে, টিকটক মোবাইল অ্যাপ শুধু আমেরিকাতেই সাড়ে ১৭ কোটি বার ডাউনলোড করা হয়েছে। গোটা বিশ্বে তা হয়েছে ১০০ কোটি বারেরও বেশি।

ট্রাম্প তাঁর নির্দেশে বলেছেন, ‘‘ইন্টারনেট এবং নেটওয়ার্কে সক্রিয় থাকলে ব্যবহারকারীদের লোকেশন ডেটা, ব্রাউজিং ও সার্চ হিস্ট্রি-সহ যা যা জেনে ফেলা সম্ভব, টিকটক ইতিমধ্যেই আমেরিকায় থাকা ব্যবহারকারীদের সেই সব তথ্য জেনে নিয়েছে। এর ফলে, ওই ব্যবহারকারীদের অত্যন্ত ব্যক্তিগত ও সম্পদ-সংক্রান্ত তথ্যাদিও চিনা কমিউনিস্ট পার্টির হাতে পৌঁছে গিয়েছে। যা খুবই উদ্বেগজনক। কারণ, এর ফলে মার্কিন সরকারি কর্মচারীদের ব্ল্যাকমেল করা সহজ হবে। গভীর যড়যন্ত্রের শিকার হবে মার্কিন ব্যবসায়িক সংস্থাগুলিও।’’

টিকটক-কে মার্কিন মুলুকে নিষিদ্ধ করার প্রক্রিয়া যে ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে, সে কথাও জানানো হয়েছে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নির্দেশে। জানানো হয়েছে, মার্কিন সেনাবাহিনী, অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা দফতর (‘হোমল্যান্ড সিকিওরিটি’) ও পরিবহণ নিরাপত্তা প্রশাসন টিকটক-কে পুরোপুরি নিষিদ্ধ করেছে।

ও দিকে, দৈনিক ‘ফাইনান্সিয়াল টাইমস’ বৃহস্পতিবার খবর দিয়েছে, টিকটক-এর ব্যবসার একটি বড় অংশ কিনে নেওয়ার ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেছে মার্কিন তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা ‘মাইক্রোসফ্‌ট’।

মার্কিন তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাটি এ ব্যাপারে মুখ খুলতে না চাইলেও, খবর, আমেরিকা, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে টিকটক-এর যাবতীয় ব্যবসাই কিনে নিতে চাইছে মাইক্রোসফ্‌ট।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন