প্রথমবার বিমানে চড়ার অভিজ্ঞতা সব সময় অন্য রকম। আর এই মার্কিন মহিলার যা অভিজ্ঞতা হল তা তাঁরসারা জীবন তো মনে থাকবেই, সেই সঙ্গে তা এখন ইন্টারনেটে চর্চার বিষয় হয়ে গিয়েছে। আসলে এক বধির মহিলা প্রথমবারের জন্য বিমানে ওঠে। আর এক বিমান সেবিকা তাঁর হাতে একটি নোট ধরিয়ে দেন। সেই নোটই নেটিজেনদের হৃদয় জিতে নিয়েছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডেল্টা এয়ারলাইন্সের সহযোগী সংস্থা এন্ডেভর এয়ারের এক বিমানে চড়েন অ্যাসলে নামে ওই মহিলা। সেটাই ছিল তাঁর জীবনের প্রথম বিমানযাত্রা। বিমান আকাশে ওড়ার আগেযাত্রীদের কিছু তথ্য দেন বিমানকর্মীরা। সেগুলি সবই মৌখিক, লাউড স্পিকারে যাত্রীদের কাছে পৌঁছে দেওয়া হয়। কিন্তু যিনি কানে শুনতে পান না তিনি কী করবেন?

বধির অ্যাসলের জন্য এক অভিনব পন্থা অবলম্বন করেন বিমান সেবিকা জান্না। তিনি একটি কাগজে নোট লিখে ওই বধির মহিলাকে দিয়ে আসেন। সেখানে লেখা ছিল, “সুপ্রভাত অ্যাসলে। আমার নাম জান্না। আমি জেএফকেগামী এই বিমানে আপনার ফ্লাইট অ্যাটেন্ডেন্ট। আপনার মাথার উপর দু’টি বোতাম রয়েছে। একটি টিপে আপনি আলো জ্বালতে-নেভাতে পারেন। অন্যটি টিপে আপনি আমাকে ডাকতে পারেন।”

আরও পড়ুন : মৃত মানুষদের সঙ্গে ‘যোগাযোগ করে’ প্রতিক্রিয়া নেওয়ার চেষ্টা!

আরও পড়ুন : হাঙরের মুখ থেকে সাঁতারুকে বাঁচিয়ে দিল ড্রোন, আকাশ থেকে ধরা পড়ল গোটা ঘটনা

এই কথাগুলিই বিমানযাত্রীদের মৌখিক ভাবে বলা হয়। কিন্তু যেহেতু অ্যাসলে কানে শুনতে পান না তাই তাঁর জন্য এই বিশেষ ব্যবস্থা করেন জান্না। গোটা ঘটনাটি অ্যাসলের মা টুইটার হ্যান্ডলে আপলোড করেন। তারপরই ডেল্টা এয়ারের বিমান সেবিকা জান্নার এই পদক্ষেপপ্রশংসিত হয়েছে নেট দুনিয়ায়।