Advertisement
১৪ জুলাই ২০২৪
Ice Facial

গরমে ত্বকের সমস্যা দূর করতে আইস ফেশিয়াল করেন? জানেন তা থেকে ত্বকের ক্ষতি হতে পারে

বলিউডের অনেক তারকাই সকালে ঘুম থেকে উঠে এক পাত্র বরফ ভর্তি জলে সটান মুখ ডুবিয়ে দেন নিয়মিত। সমাজমাধ্যমে সেই ছবি ঘোরাফেরা করে মাঝে মধ্যেই।

Image of woman

ছবি: প্রতীকী

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ২০ জুন ২০২৩ ২০:৫৮
Share: Save:

গরমের তপ্ত দুপুরে মুখের জ্বালা ভাব কমাতে বাড়ি ফিরেই ফ্রিজ থেকে বরফ বার করে মুখে ঘষতে শুরু করলেন। আবার অনেকে ওয়াক্সিং করার পরও মুখে বরফ দেন। কোনও অনুষ্ঠানে যাওয়ার আগে অনেকেই মুখে বরফ ঘষার রেওয়াজ ছিল। বলিউডের অনেক তারকাই সকালে ঘুম থেকে উঠে এক পাত্র বরফ ভর্তি জলে সটান মুখ ডুবিয়ে দেন নিয়মিত। সমাজমাধ্যমে সেই ছবি ঘোরাফেরা করে মাঝে মধ্যেই। কিন্তু সাধারণ মানুষের মনে প্রশ্ন জাগতেই পারে এমন অভ্যাস কি আদৌ ভাল? এই নিয়ে যদিও বিতর্কের শেষ নেই। চিকিৎসকেরা জানাচ্ছেন, সাময়িক ভাবে ত্বকের জ্বালা, ফোলা, লালচে ভাব, প্রদাহ কমিয়ে ফেলতে পারলে এই অভ্যাসের দীর্ঘমেয়াদি ফল মোটেও ভাল নয়। বরফ ঘষার আগে জেনে রাখা প্রয়োজন ত্বকের জন্য তা কেন ক্ষতিকর।

Image of woman

ছবি: প্রতীকী

১) আইস বার্ন

ত্বকের এক জায়গায় দীর্ঘ ক্ষণ বরফ ধরে রাখলে ত্বকের ক্ষতি হতে পারে। ঠান্ডায় ত্বকের কোষ জমে ক্রিস্টালে পরিণত হয়। যা ত্বকে স্বাভাবিক রক্ত চলাচল ব্যাহত করে। ত্বকে পর্যাপ্ত পরিমাণে অক্সিজেন পৌঁছতে পারে না। ত্বক এবং সেই সংলগ্ন টিস্যু ‘আইস বার্ন’ এর ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

২) মুখ ডুবিয়ে দেবেন না

নায়িকাদের রূপচর্চা দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে ইদানীং অনেকেই বরফ দেওয়া ঠান্ডা জলের বাটিতে মুখ ডুবিয়ে রাখেন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই অভ্যাসে শুষ্ক ত্বক আরও শুষ্ক হয়ে যেতে পারে। ত্বকে অ্যালার্জি হওয়ার প্রবণতা থাকলে, তা বেড়ে যেতে পারে।

৩) বেশি ক্ষণ বরফ রাখা যাবে না

ঘাম কম হওয়ার জন্য মেকআপ করার আগে অনেকেই মুখে বরফ ঘষেন। রূপচর্চা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দীর্ঘ ক্ষণ ধরে ত্বক বরফের সংস্পর্শে থাকলে মুখে র‌্যাশ ভরে যেতে পারে। যা থেকে পরবর্তীকালে মুখে মৃত কোষের আধিক্য দেখা যায়।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

ice facial Skin Irritation
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE