×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ জুন ২০২১ ই-পেপার

উচ্চ রক্তচাপের জন্য কোভিডের প্রভাব মারাত্মক হয়ে উঠতে পারে, কী করে নিয়ন্ত্রণ করবেন

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৫ মে ২০২১ ১৫:২৭
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।
ছবি: সংগৃহিত

হৃদরোগ বা স্ট্রোকের অন্যতম কারণ উচ্চ রক্তচাপ। কোভিড সংক্রমণের পর যাঁদের পরিস্থিতি হঠাৎ গুরুতর হয়ে উঠছে, তাঁদের মধ্যে একাংশের আগে থেকেই উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা রয়েছে। তাই যাঁদের এই সমস্যা আগে থেকে আছে, তাঁদের সাবধান হতে হবে। এই সময়ে প্রত্যেক দিন রক্তচাপ মেপে দেখুন। এবং সেটা বেশি থাকলে নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করুন।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের নির্দেশ অনুযায়ী, যেগুলি করলে আপনার রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব—

১। পুষ্টিকর খাবার: প্রোটিনে ভরপুর ডায়ে়ট আপনার জন্য উপযুক্ত। ফল, সব্জি, লো-ফ্যাট দুগ্ধজাত খাবার খান। স্যাচুরেটেড ফ্যাট কমাতে হবে। একটা খাবারের ডায়েরি রাখতে পারেন। রোজ কী খাচ্ছেন, কতটা খাচ্ছেন, লিখে রাখুন। কোনও খাবার কেনার সময় ভাল করে পিছনের চিরকুটটা পড়ুন। কতটা ফ্যাট, কতটা প্রোটিন, কতটা কার্বোহাইড্রেট রয়েছে সেগুলো দেখে নিন।

Advertisement

২। নিয়মিত শরীরচর্চা: রোজ অন্তত আধ ঘণ্টা যে কোনও রকমের শরীরচর্চা করলে আপনার রক্তচাপ নিয়ন্ত্রিত হতে পারে। তা হলে চট করে হাইপারটেনশন দেখা যাবে না। সাধারণত হাঁটা, সাইকেল চালানো বা সাঁতার খুব ভাল ব্যায়াম। কিন্তু এই লকডাউনে যেহেতু সেগুলি করা সম্ভব নয়, তাই বাড়িতে সহজ কিছু কার্ডিয়ো এক্সারসাইজ করতে হবে। হাই-ইনটেনসিটি ট্রেনিং করতে পারেন বাড়িতেই। ইউটিউবে প্রচুর ভিডিয়ো পেয়ে যাবেন।

৩। ওজন নিয়ন্ত্রণ: আপনার বিএমআই’এর মাত্রা জেনে নেওয়া প্রয়োজন। আপনার বয়স, উচ্চতা এবং আরও কিছু শারীরিক লক্ষণ অনুযায়ী আপনার কত ওজন থাকা বাঞ্ছনীয়, তা চিকিৎসক বলে দেবেন। চেষ্টা করুন সেই ওজনটাই ধরে রাখার। খুব বেশি বেড়ে যাচ্ছে মনে হলেই ওজন কমানোর প্রয়াশ করতে হবে।

৪। নুন কমান: প্রত্যেক দিন ৫ গ্রামের বেশি নুন শরীরে যেতে দেবেন না। শুধু রান্নায় কত নুন দিচ্ছেন সেটা দেখলেই চলবে না, বাজার থেকে যদি কোনও তৈরি করা খাবার কেনেন, সেটায় কতটা নুন রয়েছে, দেখা প্রয়োজন। তাই কোনও কিছু কেনার আগে প্যাকেটের পিছনে লেখা চিরকুট মন দিয়ে পড়ুন। প্রসেস্‌ড ফুড না খাওয়াই ভাল। যে কোনও বাজার থেকে কেনা চটজলদি খাবারেও প্রচুর পরিমাণে নুন থাকে। সেগুলিও খেয়াল রাখুন।

৫। উদ্বেগ কমান: নিজের মন শান্ত রাখা খুব প্রয়োজন। নিয়ম করে নিঃশ্বাসের ব্যায়াম এবং মেডিটেশন করুন। যে খবর পড়লে উদ্বেগ বেড়ে যায়, সেগুলো এড়িয়ে চলুন। নিজের আশা-প্রত্যাশাগুলি বাস্তবিক করুন। ছোট ছোট জিনিস নিয়ে খুশি থাকার চেষ্টা করুন। এবং যে কোনও কাজ যেটা করলে মন ভাল থাকে, তেমন কিছু করুন। গাছের পরিচর্যা, রান্না করা, ছবি আঁকা, গান শোনা— যে কোনও রকমে শখ হতে পারে।

৬। মদ্যপান এবং ধূমপান ত্যাগ: এই দু’টি আপনার শরীরের পক্ষে প্রচণ্ড ক্ষতিকর। রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে এক্ষুণি এই অভ্যাসগুলি ত্যাগ করুন।

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ


Advertisement