Advertisement
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২
Murder

‘লিফ্‌ট’ চেয়ে বাইকে বসে চালককে খুন, আততায়ীর হাতে ছিল শুধুই সিরিঞ্জ! ত্রিকোণ সম্পর্কের জের?

আরোহী সেজে বাইকে উঠে এক ব্যক্তি চালকের পায়ে বিষাক্ত ইঞ্জেকশন ফুটিয়ে খুন করেন তাঁকে। ৫৫ বছর বয়সি এক প্রৌঢ়ের খুনের তদন্তের কিনারা করতে গিয়ে এমনই জানাল তেলঙ্গানা পুলিশ।

বিষাক্ত ইঞ্জেকশন দিয়ে স্বামীকে খুন?

বিষাক্ত ইঞ্জেকশন দিয়ে স্বামীকে খুন? ছবি-প্রতীকী

সংবাদ সংস্থা
হায়দরাবাদ শেষ আপডেট: ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৯:২৫
Share: Save:

‘লিফ্‌ট’ দিতে গিয়ে খুন হয়ে গেলেন খোদ বাইকচালক। আরোহী সেজে বাইকে উঠে চালকের পায়ে বিষাক্ত ইঞ্জেকশন ফুটিয়ে খুন করেন এক ব্যক্তি। ৫৫ বছর বয়সি এক প্রৌঢ়ের খুনের তদন্তের কিনারা করতে গিয়ে এমনই জানাল তেলঙ্গানা পুলিশ। বাইক চালকের স্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্ক ছিল আততায়ীর। মৃতের স্ত্রীর সঙ্গে ষড়যন্ত্র করে তাঁর প্রেমিকই খুন করেছেন, দাবি প্রশাসনের। মৃতের নাম শেখ জামাল সাহেব।

পুলিশ জানিয়েছে, ১৯ সেপ্টেম্বর বাইকে করে অন্ধ্র-তেলঙ্গানা সীমান্তের কাছে গুনদ্রই গ্রামে নিজের মেয়ের কাছে যাচ্ছিলেন নিহত ব্যক্তি। পথে বল্লভি নামের একটি গ্রামের কাছে মাঙ্কি টুপি পরিহিত এক ব্যক্তি তাঁর কাছে ‘লিফ্‌ট’ চান। বাইক থামিয়ে তাঁকে তুলে নেন জামাল। কিছু দূর যাওয়ার পরই ওই আরোহী তাঁর থাইয়ে ইঞ্জেকশন ফুটিয়ে দেন। বাইক থামিয়ে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করেন শেখ জামাল। পাশের জমিতে কাজ করা কৃষকদের থেকে সাহায্যও চান। জানান, যে ব্যক্তি তাঁর বাইকে উঠেছিলেন, তিনিই ইঞ্জেকশন ফুটিয়েছেন। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও বাঁচানো যায়নি বাইকচালককে।

তেলঙ্গানার খাম্মামের এক পুলিশকর্তা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে মোহন রাও নামের এক ব্যক্তিকে। পুলিশের দাবি, মোহন রাওয়ের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল মৃতের স্ত্রীর। তিনিই হত্যা করেন শেখ জামালকে। দু’জনে পরিকল্পনা করে পেশায় চিকিৎসক ভেঙ্কটের থেকে বিষাক্ত ইঞ্জেকশনটি জোগাড় করেন। গ্রেফতার করা হয়েছে ওই চিকিৎসককেও।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.