Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

World environment day: রোজকার জীবনে কয়েকটি অভ্যাস বদলালেই পরিবেশের কম ক্ষতি করা সম্ভব

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৫ জুন ২০২১ ১২:৫২
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।
ছবি: সংগৃহিত

আজ, ৬ জুন, বিশ্ব পরিবেশ দিবস। এই দিনে কিছু বদল আনুন রোজকার জীবনযাপনে। ছোট ছোট বদলেই একটু করে কম ক্ষতি হবে পরিবেশের। আর আপনিও পরিবেশ-বান্ধব জীবনযাত্রার পথে একটু এগিয়ে যান। জেনে নিন কী ভাবে।

কাপরের থলে

প্লাস্টিক পরিবেশের সমূহ ক্ষতি করে। অথচ এখনও আমরা দোকান-বাজারে পলিথিনের ব্যাগই ব্যবহার করি। সেই অভ্যাসের বদল আনা খুব একটা কঠিন নয়। বাড়ি থেকে বেরনোর সময় কাপরের থলে বা টোট ব্যাগ নিয়ে যান। ছোটখাটো জিনিস কিনতে দোকানে গেলেও তাই। তা হলে দেখবেন আপনার বাড়িতে প্লাস্টিক জমছে না।

Advertisement

বাঁশের টুথব্রাশ

হঠাৎ করে জীবনযাপনে বড় কোনও বদল আনা মুশকিল। তবে ছোট ছোট বদল করেও আপনি পরিবেশের সাহায্য করতে পারেন। প্লাস্টিক ব্রাশের বদলে বাঁশের টুথব্রাশ ব্যবহার করতে পারেন। বাজারে এই ধরনের টুথব্রাশ এখন অনেক জায়গাতেই পেয়ে যাবেন। চারকোল লাগানো ব্রাশও পাওয়া যায়। দাঁতের পক্ষেও সেটা সাধারণ প্লাস্টিকের ব্রাশের তুলনায় অনেক ভাল।

প্লাস্টিকের বাসন বাতিল

চেষ্টা করুন প্লাস্টিকের তৈরি কোনও রকম বাসন বা শিশি-কৌটো রান্নাঘরে না রাখতে। তার বদলে স্টিল বা কাচের পাত্র ব্যবহার করুন। সব বাসন একবারে বদলে ফেলা সম্ভব ন। তবে নতুন জিনিস কেনার সময় এটা মাথায় রাখুন এবং পুরনো প্লাস্টিকের জিনিস ধীরে ধীরে বাতিল করে দিন। ‘সিঙ্গল ইউজ প্লাস্টিক’ বা একবার ব্যবহার করেই ফেলে দিতে হয়, এমন প্লাস্টিকের ব্যবহার করা কমিয়ে দিন। ব্যবহার করে ফেলে দিতে হয় এমন থালা-বাটি ব্যবহার করলে খেয়াল রাখুন যাতে তা সহজেই পরিবেশের সঙ্গে মিশে যেতে পারে।

পরিবেশ-বান্ধব স্ট্র

প্লাস্টিকের স্ট্র যেমন ক্ষতিকর, কাগজের স্ট্রও তেমনই। কাগজের স্ট্র একবার ব্যবহার করে ফেলে দিতে হয়, ফলে প্রচুর পরিমাণে কাগজের অপচয় হয়। তার বদলে কোনও ধাতুর তৈরি স্ট্র কিনে বাড়িতে রেখে দিন। যদি মনে হয় বাইরে গিয়ে কোনও ঠান্ডা পানীয় বা কফি খেতে পারেন, তা হলে সঙ্গে স্ট্র নিয়ে বেরবেন। দোকান বা ক্যাফেতে গিয়ে কাগজের স্ট্রয়ের বদলে নিজের মেটালিক স্ট্র ব্যবহার করুন।

আরও পড়ুন

Advertisement