• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ভারতে বোমা ফেলেছিলেন, তাঁর ছেলে আদনান সামিকে নাগরিকত্ব দিয়েছেন! সিএএ-র বিরুদ্ধে সরব রাজা মুরাদ

Raja Murad Adnan Sami
রাজা মুরাদ (বাঁ দিকে) ও আদনান সামি। —ফাইল চিত্র

Advertisement

সত্তর-আশির দশকে তিনি ছিলেন বলিউডের ‘ত্রাস’। পর্দায় তাঁর জলদগম্ভীর কণ্ঠস্বর আর ক্রুর চালে নাস্তানাবুদ হয়ে যেতেন বড় বড় স্টার-সুপারস্টার-মেগাস্টার। সেই রাজা মুরাদ এ বার মুখ খুললেন সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (সিএএ) বিরুদ্ধে। আদনান সামির নাগরিকত্বের প্রশ্ন তুলে অস্বস্তি বাড়ালেন বিজেপির। ‘সংবিধান বিরোধী’ আখ্যা দিয়ে সিএএ প্রত্যাহারের দাবিও তুললেন বলিউড ‘ভিলেন’। তাঁর এই বক্তব্যের পর ‘ভিলেন’ প্রসঙ্গ তুলেই রাজা মুরাদকে পাল্টা খোঁচা দিয়েছেন ক্ষুব্ধ আদনান সামি।

নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাশ হয়ে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনে পরিণত হওয়ার পর থেকেই দেশ জুড়ে তীব্র প্রতিবাদ বিক্ষোভ শুরু হয়েছিল। পশ্চিমবঙ্গ, উত্তরপ্রদেশ, কর্নাটকের মতো রাজ্যে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। উত্তরপ্রদেশেই ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। সেই ক্ষোভ-বিক্ষোভের আঁচ এখনও থামেনি। বিরুদ্ধ স্বর শোনা গিয়েছে টিনসেল টাউনের অনেক তারকার  গলাতেও। উল্টো দিকে, বিজেপির উদ্যোগে বলিউড তারকাদের নিয়ে সিএএ-র পক্ষে বৈঠক কার্যত ফ্লপ হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতেই সিএএ-র বিরুদ্ধে ব্যাট ধরলেন আড়াইশোরও বেশি ফিল্মে অভিনয় করা রাজা মুরাদ।

ভোপালে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন বলিউড ‘খলনায়ক’। সিএএ প্রসঙ্গে প্রশ্নের জবাবে সংবাদ মাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘‘নয়া আইনে আমার কোনও আপত্তি নেই। কিন্তু সেই আইন সবার জন্যই সমান হওয়া উচিত। সংবিধানে সবার সমান অধিকারের কথা বলা হয়েছে। আমার মতে এই আইন আমাদের সংবিধান-বিরোধী। কাউকেই ধর্মের ভিত্তিতে বিচার করা যায় না।’’ একই সঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘এই আইন নিয়ে কারও আপত্তি থাকা উচিত নয়। কিন্তু যদি বলা হয়, অমুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষই সুবিধা পাবেন, সেটা ঠিক নয়। হিন্দু, পার্সি, খ্রিস্টান, বৌদ্ধ, জৈন, শিখ— সবাই এই আইনের সুবিধা পাবে।’’

আরও পড়ুন: সিএএ: শীতের রাতে প্রতিবাদীদের কম্বল কেড়ে নিল যোগীর পুলিশ

জন্মসূত্রে পাকিস্তানি আদনান সামিকে ২০১৬ সালে নাগরিকত্ব দিয়েছে ভারত। তার পর থেকে তিনি ভারতেই থাকেন। সেই প্রসঙ্গ টেনে রাজা মুরাদ বলেন, আপনারা আদনান সামিকে নাগরিকত্ব দিয়েছেন কি দেননি? তিনি কি মুসলিম নাকি মুসলিম নন? তিনি পাকিস্তানের বাসিন্দা ছিলেন। ওঁর বাবা পাক বায়ুসেনাতে ছিলেন এবং ১৯৬৫ সালের যুদ্ধে ভারতে বোমা ফেলেছেন। আদনান সামির নাগরিকত্ব দেওয়া নিয়ে আমার কোনও আপত্তি নেই। আমার শুধু আপত্তি এখানেই যে, আপনারা শুধু একটি সম্প্রদায়কে বঞ্চিত করছেন এবং দেখাতে চাইছেন যে তাঁরা আলাদা। সরকারের উচিত ধর্মের বিচার ছাড়াই সবাইকে নাগরিকত্ব দেওয়া।’’

আর যাঁর উদাহরণ টেনে এনেছেন রাজা মুরাদ, সেই আদনান সামির তরফ থেকেও জবাব এসেছে কিছুক্ষণের মধ্যেই। বিষয়টিতে তিনি যে ক্ষুব্ধ, তা তাঁর বক্তব্যেই বুঝিয়ে দিয়েছেন। টুইটারে সঙ্গীতশিল্পীর খোঁচা, ‘‘আমি ভেবেছিলাম, ওই ব্যক্তি ভিলেন ছিলেন এবং শুধু সিনেমাতেই খারাপ কথা বলতেন।’’

আরও পড়ুন: গত বছর এই সময়ে ছিলেন পাক নাগরিক, আজ রাজস্থানের সরপঞ্চ!

সিএএ-র বিরুদ্ধে সারা দেশে যে ভাবে প্রতিবাদ-প্রতিরোধ হচ্ছে, সেই কথা মাথায় রেখেই এই আইন প্রত্যাহার করা উচিত। বাজেটে একাধিক ঘোষণা করেও পরে প্রত্যাহারের উদাহরণও দিয়েছেন প্রয়াত বলিউড অভিনেতা মুরাদের ছেলে রাজা। তাঁর বক্তব্য, ‘‘শুধু মুসলিম নয়, হিন্দু-শিখ থেকে শুরু করে সব সম্প্রদায়ের মানুষই এই আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করছেন। অনেক সময়ই এমন হয়েছে যে বাজেটে ঘোষণা হয়েছে, কিন্তু তা জনবিরোধী বলে মনে করেছেন মানুষ, তার পর সেটা ফিরিয়ে নেওয়া হয়েছে। সেই ভাবেই সিএএ-ও ফিরিয়ে নেওয়া উচিত সরকারের।’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন