• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

স্কুল বন্ধ তো কী, বাইকে বোর্ড ঝুলিয়ে পাড়ায় পৌঁছে যাচ্ছেন রুদ্র স্যার

Teacher
পাড়ায় পাড়ায় স্কুল চালাচ্ছেন ছত্তীসগঢ়ের স্কুলশিক্ষক রুদ্র রানা। ছবি: টুইটার থেকে নেওয়া।

কোনও কোনও পড়ুয়া ঘরে বসেই ক্লাস করছে, পরীক্ষা দিচ্ছে। কিন্তু করোনার জেরে বেশির ভাগ শিশুই স্কুল-পড়াশোনা থেকে কয়েক যোজন দূরে সরে গিয়েছে। গোটা বিশ্ব জুড়েই পরিস্থিতিটা কম-বেশি একই। তবে এমন শিশুদের কথা ভেবেই অনেকে এগিয়েও আসছেন। যেমন বেঙ্গালুরুর সাব-ইনস্পেক্টর শান্তাপ্পা। তেমনই ছত্তীসগঢ়ের স্কুলশিক্ষক রুদ্র রানা। তিনি এবার স্কুল নিয়ে পৌঁছে গেলেন ছাত্রদের ঘরে।

সংবাদ সংস্থা এএনআই একটি টুইট করেছে। সেখানে বলা হয়েছে, ছত্তীসগঢ়ের কোরিয়া জেলার এক সরকারি স্কুলের শিক্ষক রুদ্র রানা। তিনি মোটরসাইকেলে বোর্ড, বেঁধে পাড়ায় পৌঁছে যাচ্ছেন। সেখানেই বড় ছাতা খাটিয়ে স্কুল চালু করে দিয়েছেন।

টুইটের সঙ্গে কয়েকটি ছবিও পোস্ট করা হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, রুদ্র মোটরসাইকেলে বোর্ড ঝুলিয়ে অঙ্ক করাচ্ছেন। আর শিক্ষক ও পড়ুয়াদের মধ্যে নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রেখে ক্লাস চলছে। এমনকি, ছাত্রদের কাছাকাছি যখন যাচ্ছেন রুদ্র, তখন তিনি মাস্ক পরে নিচ্ছেন।

আরও পড়ুন: বাঁদরের সেল্ফি, খোয়া যাওয়া মোবাইলের গ্যালারি ভরা বাঁদরামি

আরও পড়ুন: এক বোতল বালি চুরির দায়ে প্রায় লাখ টাকার জরিমানা

রুদ্র জানিয়েছেন, তিনি বাইকে করেই বোর্ড, বই, কিছু প্ল্যাকার্ড নিয়ে পৌঁছে যান। সেখানে তিনি স্কুলের মতোই ঘণ্টা বাজান। আর পড়ুয়ারা বাড়ি থেকে বেরিয়ে এই মহল্লা স্কুলে চলে আসে। স্কুল শুরু হয় প্রার্থনা দিয়ে, যেমনটা হয় সাধারণ অবস্থায় স্কুল চলার সময়। তিনি এক এলাকা থেকে অন্য এলাকায় এভাবেই স্কুল করে চলেছেন। এমনকি স্থানীয়রাও তাঁকে সাহায্য করছেন।

শিক্ষক রুদ্রের এই ছবি ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। নেটাগরিকরা তাঁর অকুণ্ঠ প্রশংসা করে চলেছন।

দেখুন সেই পোস্ট:

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন