কষা মাংস দিয়েও পিৎজা! জিভে জল আসবে এমন রান্নায়

নিজস্ব প্রতিবেদন
কষা মাংস দিয়েও পিৎজা! জিভে জল আসবে এমন রান্নায়

পেটে সইলে সব কিছুতেই সয়। বাঙালির ক্ষেত্রে অন্তত তা-ই সত্য। অন্যান্য বিষয়ে খামতি থাকলেও হাঁড়ির বিষয়ে তাদের কোনও আপস নেই। বাড়ি-গাড়ি-পোশাক-আসবাব যেমনই হোক, রান্নাঘর নিয়ে কোনও শ্রেণিযুদ্ধ নেই বাঙালির। তাই সাহিত্যেও খাবার কত ভাবে জায়গা করে নিয়েছে।

শাক-সব্জি স্বাস্থ্যের পক্ষে ভাল, এ কথা সকলের জানা। কিন্তু সপ্তাহে একটা দিন পাতে মাংস না পড়লে পেট ভরলেও মন ভরে না। তাই কোর্মা হোক বা বিরিয়ানি, মাংস নিয়ে বিলাসিতা বাঙালির আজীবনের। ছুটির দুপুর মানে তাই আজও কব্জি ডুবিয়ে মাংস খাওয়ার দিন।

মাংস নিয়ে যেমন সাবেকি কিছু রেসিপি রয়েছে, তেমনই আজকাল বিভিন্ন রেস্তরাঁয় মাংস রান্না নিয়ে বিভিন্ন রকমের পরীক্ষানিরীক্ষা হচ্ছে।  খাবারে ফিউশন চমক আনতে রাজারহাটের ‘ট্রাফিক গ্যাস্ট্রোপাব’-এর মেনুতে রয়েছে কষা মাংসের পিৎজাও। চিকেনের টুকরো দিয়ে বানানো পিৎজার মতো এটি নয়। বাঙালির কষা মাংস দিয়েই এ পিৎজা বানানো দস্তুর। দেখে নিন রেসিপি আর বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন এই লোভনীয় পদ।

আরও পড়ুন: মাছ ভালবাসেন? সহজেই বানান ফিশ ব্যাটার ফ্রাই

মাংসের পিৎজা

উপকরণ

ময়দা: ২০ গ্রাম

ইস্ট: ২ গ্রাম

নুন: ১ গ্রাম

চিনি: ১ গ্রাম

অলিভ অয়েল: ৩ গ্রাম

মোজারেলা চিজ: ১৫গ্রাম

চিকেন বোনলেস: ১০০ গ্রাম

রসুন কুচি: ৫ গ্রাম

ধনে গুঁড়ো: ৩ গ্রাম

দই:৪ গ্রাম

সর্ষের তেল: ৫ গ্রাম

নুন: ৩ গ্রাম

আদা রসুন পেস্ট: ৪ গ্রাম

চিকেন স্টক পাওডার: ২ গ্রাম

লঙ্কার গুঁড়ো: ২ গ্রাম

কোরিয়েন্ডার পেস্ট: ৫ গ্রাম

জিরে গুঁড়ো: ৩ গ্রাম

কিচেন কিং: ৩ গ্রাম

গরম মশলা- ৩ গ্রাম

আরও পড়ুন: চটজলদি রান্নায় এমন মাছের পদ! অতিথি তারিফ করতে বাধ্য

প্রণালী: একটি বড় পাত্রে ময়দার সঙ্গে ইস্ট, নুন, চিনি, অলিভ অয়েল মেশান। এক ঘণ্টা রেখে দিন। চিকেনের টুকরোগুলো ছোট করে কেটে ধুয়ে নিন। দই, আদা, রসুন পেস্ট, নুন, সরষের তেল এবং মশলাগুলি দিয়ে চিকেন ম্যারিনেট করুন। এ বার একটি ফ্রাইং প্যানে চিকেন দমে বসান। ১০ মিনিট ধরে রান্না হতে দিন। জল দেবেন না। চিকেন থেকে যে জল বেরবে তা দিয়েই রান্না হতে দিন। এবার পিৎজা বেস নিয়ে তাতে মোজারেলা চিজ দিন। তার উপরে মাংসগুলি ও মশলা ছড়িয়ে দিন।  ২৮০ ডিগ্রিতে বেক করুন। হয়ে গেলে পিৎজার মতো কেটে উপরে পেঁয়াজ ভাজা ও ধনে কুচি ছড়িয়ে পরিবেশন করুন।