চিংড়ি, ইলিশ ভাপা ছেড়ে এ বার ভাপা চিকেন ! কী ভাবে বানাবেন?

নিজস্ব প্রতিবেদন
চিংড়ি, ইলিশ ভাপা ছেড়ে এ বার ভাপা চিকেন ! কী ভাবে বানাবেন?

ভাপা ইলিশ ও ভাপা চিংড়ি, পদ দুটি বাঙালির রান্না ঘরে বহুল পরিচিত। প্রায়ই খাদ্যতালিকায় এদের ঠাঁই হয়। তবে ভাপা রান্নায় শুধু ইলিশ বা চিংড়িই নয়, চিকেনের পদও খুবই ভাল খাপ খায় কিন্তু!

চিকেন কষা, কাবাব কিংবা কোর্মা প্রায় সকলেই খেয়েছেন। কিন্তু ভাপা চিকেনের প্রচলন আধুনিক বাঙালির রান্নাঘরে অনেকটাই কমে এসেছে। পুরনো দিনের রান্নার মধ্যে ভাপা চিকেন অন্যতম।

চটজলদি ঘরে থাকা উপকরণ দিয়েই বানিয়ে ফেলা যায় ভাপা চিকেন। কী ভাবে তৈরি করবেন রইল তার হদিশ।

আরও পড়ুন:  আর রেস্তরাঁয় কেন? ঢাকাই ভুনা চিংড়ির রেসিপি এতই সহজ যে বাড়িতেই রাঁধুন সহজে

উপকরণ

বোনলেস চিকেন: ৫০০ গ্রাম

এলাচ: ২ টি

পোস্ত: ২ চা চামচ

সরষে: ২ টেবিল চামচ

কাজু বাদাম: ৬ টি

কাঁচা লঙ্কা: ৩ টি

শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো: ১ টেবিল চামচ

হলুদ গুঁড়ো: ১ টেবিল চামচ

পেয়াঁজ কুচি: মাঝারি আকারের তিনটি

আদা বাটা: ১ চা চামচ

রসুন বাটা: ১ চা চামচ

টক দই: ৩ টেবিল চামচ

সরষের তেল: ২ টেবিল চামচ

নুন: স্বাদ মতো

আরও পড়ুন: ডাবের ভিতর নারকেলের দুধে মেশা চিংড়ি! বর্ষবরণের পাত সাজান বাঙালিয়ানায়

প্রণালী : প্রথমে মিক্সিতে সরষে, পোস্ত, কাজু বাদাম, কাঁচা লঙ্কা অল্প জল দিয়ে বেটে নিয়ে। যে পাত্রে আপনি ভাপা চিকেন বসাবেন সেই পাত্রে বাটা উপকরণ ছাড়াও শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো, টক দই, সরষের তেল এবং স্বাদ মতো নুন সব এক সঙ্গে ভালো করে মিশিয়ে তার মধ্যে বোনলেস চিকেনের টুকরোগুলি দিয়ে  ভলো করে মাখিয়ে কিছু সময়ের জন্য রেখে দিন।

অন্য দিকে একটি প্যান গরম করে তাতে অল্প সরষের তেল ঢেলে এলাচ ফোঁড়ন দিন। এর পর ওই তেলেই পেয়াঁজ কুচি, আদা-রসুন বাটা হালকা ফ্রাই করে নিন। সব এক সঙ্গে ফ্রাই হয়ে গেলে মাংসের মিশ্রণটিতে মিশিয়ে ফেলুন। শেষে পাত্রের মুখ বন্ধ করে প্রেসার কুকারে অল্প জল দিয়ে পাত্রটি বসিয়ে গ্যাস জ্বালিয়ে নিন এবং দু’-তিনটি সিটি পড়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। গরম ভাত বা পোলাওয়ের সঙ্গে পরিবেশন করুন।