বৃষ্টি ভেজা সন্ধ্যায় এ বার পাতে পড়ুক রকমারি কাটলেট

মনামি সাধুখাঁ চৌধুরী
বৃষ্টি ভেজা সন্ধ্যায় এ বার পাতে পড়ুক রকমারি কাটলেট

চিকেন কবিরাজি

উপকরণ: বোনলেস চিকেন ব্রেস্ট ১টি, পাতিলেবুর রস ১ চা চামচ, সরষে গুঁড়ো আধ চা চামচ, আদা রসুন বাটা ১ চা চামচ, পেঁয়াজ বাটা ২ চা চামচ, শা-মরিচ গুঁড়ো আধ চা চামচ, ধনেপাতা বাটা ২ চা চামচ, কাঁচা লঙ্কা বাটা ১ চা চামচ, গরম মশলা গুঁড়ো আধ চা চামচ, ডিম ২টি, কর্নফ্লাওয়ার ২ টেবিল চামচ, বিস্কিটের গুঁড়ো আধ কাপ, নুন স্বাদমতো, তেল ২ কাপ।

প্রণালী: নুন ও পাতিলেবুর রস মাখিয়ে চিকেন ব্রেস্ট মিনিট কুড়ি ম্যারিনেট করতে দিন। একটি পাত্রে সরষে গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো, শা-মরিচ গুঁড়ো, ধনেপাতা বাটা, কাঁচা লঙ্কা বাটা, আদা রসুন বাটা, পেঁয়াজ বাটা ও গরম মশলা গুঁড়ো একসঙ্গে মিশিয়ে রাখুন। এই মিশ্রণটা চিকেন ব্রেস্টের গায়ে ভাল করে মাখিয়ে চেপে চেপে শেপ দিন। কাটলেটের আকারে এসে গেলে ফ্রিজে রাখুন। অন্য দিকে ডিম ও কর্নফ্লাওয়ার গুলে রাখুন। কাটলেট বার করে ডিমের ব্যাটারে চুবিয়ে ভেজে রাখতে হবে।

কবিরাজির আসল কাজ শুরু এ বার। ডিমের জালি তৈরি করতে তেল ভাল করে গরম করে নিন। ফুটন্ত তেলে ডিম ও কর্নফ্লাওয়ারের ব্যাটার হাতে করে উপরে ছড়িয়ে দিন। দেখবেন, তেলে দেওয়ামাত্র ডিমের জালি ফুলে ফুলে উঠছে। কড়াইয়ে জালি ফুলে উপর দিকে উঠে এলে তার মধ্যে কাটলেট দিয়ে দিন। যদি কাটলেট জালির উপরে ভাসতে থাকে, বুঝবেন একদম ঠিক হয়েছে। এ বার জালিসহ কাটলেট আস্তে করে তুলে নিন প্লেটে। দু’পাশ থেকে ডিমের জালি দিয়ে মুড়ে দিন। গরম চায়ের সঙ্গে পরিবেশন করুন কবিরাজি কাটলেট।

মাটন কিমা কাটলেট


উপকরণ: মাটন কিমা ২ কাপ, মাঝারি মাপের আলু ৩টি, পাউরুটির গুঁড়ো ১ কাপ, বিস্কিটের গুঁড়ো ১ কাপ, লাল লঙ্কা গুঁড়ো ১ টেবিল চামচ, চাট মশলা ১ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়ো ১ টেবিল চামচ, গরম মশলা গুঁড়ো ২ চা চামচ, আদা রসুন বাটা ২ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ ২টি, ধনেপাতা কুচি ২ টেবিল চামচ, জিরে গুঁড়ো ২ চা চামচ, ধনে গুঁড়ো ২ চা চামচ, ডিম ৩টি, কর্নফ্লাওয়ার ৩ টেবিল চামচ, নুন স্বাদমতো, তেল ২ কাপ।


প্রণালী: প্রথমে পেঁয়াজ লাল করে ভেজে নিন। এর মধ্যে সিদ্ধ মাটন কিমা, আলু সিদ্ধ, আদা-রসুন বাটা, ধনে গুঁড়ো, জিরে গুঁড়ো, ধনেপাতা কুচি, নুন, হলুদ, লাল লঙ্কা গুঁড়ো, গরম মশলা গুঁড়ো ও চাট মশলা দিয়ে ভাল করে কষিয়ে নিতে হবে। এর মধ্যে পাউরুটির গুঁড়ো মিশিয়ে পছন্দসই আকারে কাটলেট গড়ে নিন। পিছনের দিকে একটা মাটনের হাড়ও গুঁজে দিতে পারেন পুরনো দিনের কাটলেটের স্টাইল ধরে রাখতে। এ বার ডিম, কর্নফ্লাওয়ার ও নুনের ব্যাটারে এই কাটলেট ডুবিয়ে বিস্কিটের গুঁড়ো মাখিয়ে নিতে হবে। তার পরে কড়াইয়ে ডুবো তেলে ভাল করে ভেজে তুলে নিন।