‘অওধ ১৫৯০’–এর খাস হেঁশেলের কাবাব বাড়িতেই বানান এই পদ্ধতিতে

নিজস্ব প্রতিবেদন
‘অওধ ১৫৯০’–এর খাস হেঁশেলের কাবাব বাড়িতেই বানান এই পদ্ধতিতে

শীত মানেই শহর জুড়ে শুরু ভোজনরসিকদের নানা উৎসব। গত বছরের শেষে ক্রিসমাসে টার্কিতে মজেছিল বাঙালি। আবার কোথাও তখন হাঁসের মাংস নিয়ে তুমুল এক্সপেরিমেন্ট! শীতের দুপুর বা রাতে প্রিয় জনের সঙ্গে পছন্দের পদে কামড় বসানোর সুখে বঞ্চিত হতে চায় না কেউই। তাই শহরও তার নানা গলিঘুঁজিতে সাজিয়ে রাখে খাওয়াদাওয়ার উসব। জিভে প্রেমের এই সহজ রসায়ন কলকাত্তাইয়াদের কাছে অপিরিচিতনয় মোটেও।

সেই রসায়নে ভর করেই ‘অওধ ১৫৯০’-এর অন্দরে শুরু হয়েছে ‘দ্য গ্রেট অওয়াধি কাবাব ফেস্টিভ্যাল’।গতকাল, ১৮ জানুয়ারি থেকেই আমজনতার জন্য খুলে গিয়েছে সেই রসনাতৃপ্তির আসর। প্রথম দিনই সাড়া মেলে যথেষ্ট। মনসুর ও কামারুল এই দুই শেফের হাতযশেই চিংড়ি, চিকেন, মাটন, মাছ, পনির, আলু ইত্যাদির কাবাব হয়ে উঠেছে অতুলনীয়।

তা বলে যাঁরা এই কাবাব উৎসবে যেতে পারছেন না, তাঁরা কি বাদই পড়ে গেলেন এমন লোভনীয় পদ থেকে? তা কেন? বরং অওধ ১৫৯০-এর শেফদের পরামর্শ মেনে বাড়ির হেঁশেলেও বানিয়ে ফেলতে পারেন এমন কাবার। রইল তেমনই একটি কাবাবের পদ।

আরও পড়ুন: ‘অওধ ১৫৯০’-এর কাবাব উৎসবে কী কী থাকছে মেনুতে? খরচই বা কত?

সরষোঁ মাহি টিক্কা

উপকরণ: নামেই মালুম এই পদ মাছের। সরষেও রয়েছে এই পদের উপকরণে। কাবাব বানানোর জন্য প্রয়োজনীয় আকারে কাটা ভেটকি মাছের ফিলে ও সরষে ছাড়াও লাগছে জল ঝরানো টক দই, ধনে গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো, গরম মশলা, লেবুর রস, মাখন, আদা-রসুন পেস্ট, কাসুন্দি, সরষে গুঁড়ো, কসুরি মেথি পাউডার, সরষের তেল ও স্বাদ অনুযায়ী নুন ও লঙ্কা গুঁড়ো।

আরও পড়ুন: ডিমের এই রকমারি রান্নায় টিফিনবক্স হবে নিমেষে সাফ

প্রণালী: প্রথমে ভেটকি মাছ ভাল করে ধুয়ে তাতে আদা-রসুন বাটা, নুন, লেবুর রস ও নুন মাখিয়ে ২০ মিনিট মতো ম্যারিনেট করে রাখুন। এর পর জল ঝরানো টক দই, ধনে গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো, গরম মশলা, কসুরি মেথি, কাসুন্দি, স্বাদ অনুযায়ী লঙ্কা গুঁড়ো, মাখন, সরষের তেল মাছের গায়ে মাখিয়ে তাদের একটি শিকের মধ্যে গেঁথে নিন। এ বার তাদের তারজালিতে রেকে সেঁকে নিলেই আপনার ‘হোমমেড’ সরষোঁ মাহি কাবার তৈরি।