অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপে দেশের রক্ষণ সামলেছিলেন তিনি। ভারতের হেড কোচ ইগর স্তিমাচের নজরেও পড়ে গিয়েছিলেন। কিংস কাপ, ইন্টারকন্টিনেন্টাল কাপ, ওমান, কাতার ও বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সম্ভাব্য ভারতীয় দলে তাঁকে রেখেছিলেন ক্রোয়েশিয়ান কোচ। শেষ পর্যন্ত চোটের জন্য জায়গা হয়নি তাঁর। এ বার অনির্দিষ্টকালের জন্য ফুটবলে পা দেওয়া বারণ হয়ে গেল আনোয়ার আলির। ভারতের বিশ্বকাপারের হৃদযন্ত্রে সমস্যা দেখা দিয়েছে। জানা গিয়েছে, এই সমস্যা তাঁর জন্মগত। বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষার পরে আনোয়ারকে ফুটবল থেকে দূরে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। আদৌ কি আর মাঠে ফিরতে পারবেন তিনি? তাঁকে ঘিরে এখন সবচেয়ে বড় প্রশ্ন এটাই। চিকিৎসার জন্য ফ্রান্সে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে আনোয়ারকে। ২০১৭ সালে অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপের প্রথম একাদশে ছিলেন মিনার্ভা পঞ্জাবের প্রাক্তন এই ফুটবলার। গ্রুপের তিনটি ম্যাচই খেলেছিলেন।

বিশ্বকাপের পরে সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের দল ইন্ডিয়ান অ্যারোজের হয়ে আই লিগ খেলেন আনোয়ার। গত মরসুমে অ্যারোজ থেকে তিনি সই করেন আইএসএল-এর ক্লাব মুম্বই সিটিতে। সেখান থেকে লোনে তাঁকে নেয় ইন্ডিয়ান অ্যারোজ। তাঁর খেলা দেখে মুগ্ধ হয়েছিলেন স্তিমাচ।

আরও পড়ুন: গৃহযুদ্ধে মৃত্যু বাবার, সুনীলদের বেগ দিতে তৈরি শরণার্থীর জীবন কাটানো আফগান গোলকিপার

সেই কারণেই সম্ভাব্য ভারতীয় দলে আনোয়ারকে রেখেছিলেন সুনীল ছেত্রীদের হেড কোচ। কিন্তু, সেই সময়ে চোটের কারণে জাতীয় দলে যোগ দিতে পারেননি। এ বার হৃদযন্ত্রে সমস্যা ধরা পড়ায় ফুটবল মাঠ থেকেই আপাতত সরে যেতে হচ্ছে। কবে ফিরবেন জানা নেই। তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছে এআইএফএফ, আইএসএল ফ্র্যাঞ্চাইজি মুম্বই সিটি।