টেস্ট সিরিজে ঐতিহাসিক সাফল্যের পরে এ বার ভারতীয় দলের সামনে নতুন লক্ষ্য বিশ্বকাপ। যার চূড়ান্ত প্রস্তুতি শনিবার থেকে শুরু হয়ে যাচ্ছে সিডনিতে, অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম ওয়ান ডে ম্যাচে। 

এই সিরিজে তিনটি ম্যাচ। এর পরে নিউজিল্যান্ডে পাঁচটি ওয়ান ডে ও অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে আরও পাঁচটি। সব মিলিয়ে ১৩টি ম্যাচ ভারতের কাছে বিশ্বকাপের চূড়ান্ত প্রস্তুতি নেওয়ার সুযোগ। ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহালিও বলছেন, ‘‘বিশ্বকাপের দল প্রায় তৈরি। কিন্তু একটু ঘষা-মাজা প্রয়োজন, যা এই পর্বে করতে হবে আমাদের।’’ শুক্রবার সিডনিতে ভারত অধিনায়ক সঙ্গে যোগ করেন, ‘‘বিশ্বকাপের আগে আর বেশি ম্যাচ নেই আমাদের। তাই বিশ্বকাপে যে দল খেলবে, সেই দল নিয়েই আমরা এই ম্যাচগুলোতে খেলব। কারও উপরই যাতে বেশি চাপ না পড়ে, সে দিকটা দেখতে হচ্ছে। তাই বুমরাকে এই সিরিজে ও নিউজিল্যান্ডে বিশ্রাম দিতে হচ্ছে।’’  

ভারতীয় শিবিরে এ রকম ভাবনাচিন্তা থাকলেও হার্দিক পাণ্ড্য ও কে এল রাহুলকে নিয়ে শুরু হওয়া অপ্রত্যাশিত বিতর্কে দল কিছুটা হলেও নড়েচড়ে বসেছে। রাহুলের প্রথম দলে থাকার নিশ্চয়তা না থাকলেও, অস্ট্রেলিয়ায় ওয়ান ডে সিরিজে হার্দিকের খেলা নিয়ে তেমন সংশয় ছিল না। তাই বোর্ডের দেওয়া নির্বাসনে হার্দিক এই সিরিজ থেকে ছিটকে যাওয়ায় ভারতীয় পেস বিভাগে নতুন কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষার দরজা খুলে গিয়েছে। যার ইঙ্গিত মিলেছে বিরাটের কথাতেও। তিনি বলছেন, ‘‘ভাল খবর হল, টেস্ট সিরিজ চলার সময় নিজেকে তৈরি করে ভুবনেশ্বর কুমার ফিরে এসেছে। খলিল আহমেদ সুযোগ পেয়ে তা ভাল কাজে লাগিয়েছে। নতুন বলে সাফল্য পাওয়ার মতো দক্ষতা রয়েছে মহম্মদ শামির। বিশ্বকাপের আগে ও নিজেকে প্রমাণ করার সুযোগ পাবে।’’ 

পাণ্ড্যকে না পাওয়া গেলেও বিরাট ভরসা রাখছেন রবীন্দ্র জাডেজার উপর। বলেন, ‘‘ঘরের মাঠে আমরা একজন রিস্ট স্পিনার (কব্জির মোচড়ে স্পিন করেন যিনি) ও একজন ফিঙ্গার স্পিনার (আঙুল দিয়ে স্পিন করান যিনি) নিয়ে খেলেছি। জাডেজার মতো একজন অলরাউন্ডার আমাদের রয়েছে যখন, তখন এই পরিস্থিতিতে ও-ই আমাদের কাজে আসবে।’’

আরও পড়ুন: নির্বাসিত হার্দিকরা, প্রশ্ন সিদ্ধান্ত নিয়ে

গত কয়েকদিন বৃষ্টির পরে শনিবার ঝলমলে রোদ ওঠার কথা সিডনিতে। সিডনির পাটা উইকেটে কিছুটা ঘাস থাকলেও এই ম্যাচে ব্যাটসম্যানদেরই জাঁকিয়ে বসার সম্ভাবনা রয়েছে।

অন্য দিকে, বিশ্বকাপের আগে এই ম্যাচ অস্ট্রেলিয়ার কাছেও একটা মহড়া। ইতিমধ্যেই সিরিজ থেকে ছিটকে গিয়েছেন মিচেল মার্শ। দীর্ঘ আট বছর পরে শনিবার ফের ওয়ান ডে ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে নামার সম্ভাবনা রয়েছে পিটার সিডলের। অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চের সঙ্গে ওপেন করতে পারেন উইকেটকিপার অ্যালেক্স ক্যারে।