• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নিয়মের গেরো! বাকিদের একদিন, কলকাতার তিন ক্রিকেটারকে নিভৃতবাসে থাকতে হবে ছ’দিন

KKR
আবু ধাবি বিমানবন্দরে মর্গ্যান, কামিন্স, ব্যান্টনরা। ছবি টুইটার থেকে নেওয়া।

বাকিদের আইসোলেশনে থাকতে হবে মাত্র এক দিন। কিন্তু কলকাতা নাইট রাইডার্সের প্যাট কামিন্স, ইয়ন মর্গ্যান ও টম ব্যান্টনের ক্ষেত্রে সেটাই বেড়ে দাঁড়াচ্ছে ছয় দিন। সৌজন্যে সংযুক্ত আরব আমিরশাহির নিয়ম!

ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটাররা বুধবার ম্যাঞ্চেস্টারে ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচে অংশ নিয়ে বৃহস্পতিবার পৌঁছেছেন মরুভূমির দেশে। ম্যাঞ্চেস্টার থেকে চার্টার্ড ফ্লাইটে তাদের আসার ব্যবস্থা করেছিল ফ্র্যাঞ্চাইজিরা। সমস্যা হল, দুবাই ও আবু ধাবিতে বাইরে থেকে আসা ব্যক্তিদের জন্য আলাদা আলাদা কোয়রান্টিনের নিয়ম রয়েছে। দুবাইয়ে যেমন নির্দিষ্ট ভাবে কোয়রান্টিনের কোনও বাধ্যতামূলক সময়সীমা নেই। আবু ধাবিতে কিন্তু বাইরে থেকে আসাদের বাধ্যতামূলক ভাবে থাকতে হবে ১৪ দিনের কোয়রান্টিনে।

ফলে, দুবাইয়ে পৌঁছনো ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার ১৮ জন ক্রিকেটারকে ৩৬ ঘন্টা কোয়রান্টিনে থাকতে হচ্ছে। শনিবারই তাঁরা যোগ দিতে পারবেন অনুশীলনে। নিয়ম অনুসারে বিমানবন্দর থেকে তাঁদের সরাসরি হোটেলের ঘরে চলে আসার কথা। সেখানেই তাঁদের টেস্ট হওয়ার কথা শুক্রবার। টেস্টের রেজাল্ট নেগেটিভ হলে অনুশীলন শুরু করতে কোনও সমস্যা হবে না তাঁদের। এর ফলে, কোনও ফ্র্যাঞ্চাইজিকে ভুগতে হবে না। শনিবার উদ্বোধনী ম্যাচে যেমন চেন্নাই সুপার কিংস পেতে চলেছে জোশ হ্যাজেলউড ও স্যাম কারেনকে। তবে তার জন্য কোভিড টেস্টে পাশ করতে হবে তাঁদের। 

আরও পড়ুন: কোহালি এ বার আইপিএল জিতবেন, আশাবাদী কোচ

আরও পড়ুন: ‘শাহরুখ নিয়ে আমার ভাল স্মৃতি নেই’, প্রথম আইপিএলের বিস্ফোরক স্মৃতিচারণে প্রাক্তন সিএবি প্রেসিডেন্ট​

কলকাতার তিন ক্রিকেটার যেহেতু আবু ধাবিতে দলের সঙ্গে যোগ দিচ্ছেন, তাই তাঁদের বেশিদিন থাকতে হবে ঘরের মধ্যে। যেহেতু, ক্রিকেটাররা ইংল্যান্ডে ওয়ানডে সিরিজ চলাকালীন জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যেই ছিলেন, তাই তাঁদের দুই সপ্তাহের জন্য আইসোলেশনে থাকতে হবে না। মেয়াদা কমে দাঁড়িয়েছে ছয় দিনে। কোভিড পরীক্ষায় পজিটিভ না হলে মর্গ্যান, কামিন্স, ব্যান্টনরা ২৩ তারিখ আইপিএলে কেকেআরের প্রথম ম্যাচে নামতেও পারবেন।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন