খাদের কিনারা থেকে প্রত্যাবর্তন ঘটিয়ে ইতিহাস ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড-এর। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ-এর ইতিহাসে প্রথম লেগে দুই বা তার বেশি গোলে পিছিয়ে থেকে কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে নজির গড়ল ম্যান ইউ। 

ঘরের মাঠে দুরন্ত ছন্দে পিএসজি। শেষ ১৫ ম্যাচে মাত্র একটিতে হেরেছে তারা। তার উপরে শেষ ষোলোর প্রথম লেগে ঘরের মাঠে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডকে  ২-০ গোলে মাটি ধরিয়েছিল ফরাসি ক্লাব। মাঠে বল গড়ানোর আগে সব দিক থেকেই এগিয়েছিল ফ্রান্সের ক্লাবটি। 

খেলার কুইজ 

হোম ম্যাচে হারের ফলে চাপ বাড়তে শুরু করেছিল ম্যাঞ্চেস্টারের উপরে।  ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে গিয়ে ম্যান ইউকে হারানোর ফলে পিএসজি-র কাছে পরের পর্বে যাওয়ার সমীকরণ সহজ হয়ে গিয়েছিল। ফুটবলদেবতা বোধহয় ভেবে রেখেছিলেন অন্য কিছু। সবাইকে চমকে দিয়ে অ্যাওয়ে ম্যাচে দুরন্ত ভাবে ফিরে এসে কোয়ার্টার ফাইনালের ছাড়পত্র পেলেন লুকাকুরা।

আরও পড়ুন: প্যারিসে জবাব দেবে তাঁর দল, দাবি সোলসারের 

আরও পড়ুন: লিগ নিয়ে আর বেশি ভাবতে চান না পেপ 

বুধ-রাতে পিএসজি-র মাঠে ৩-১ গোলে জিতল ম্যাঞ্চেস্টার। দুটো লেগ মিলিয়ে স্কোরলাইন দাঁড়ায় ৩-৩। বিপক্ষের মাঠে গিয়ে বেশি গোল করায় কোয়ার্টার ফাইনালে উঠল ইউনাইটেড। ম্যান ইউ-র জয়ের পিছনে অবদান রয়েছে রোমেলু লুকাকুর। খেলার ২ ও ৩০ মিনিটে জোড়া গোল করেন এই বেলজিয়ান স্ট্রাইকার।

৯৪ মিনিটে  পেনাল্টি থেকে গোল করে ম্যান ইউ-এর জয় নিশ্চিত করেন মার্কাস র‌্যাশফোর্ড। পিএসজির পেনাল্টি বক্সে হ্যান্ডবল হলে ভিএআর প্রযুক্তির সাহায্যে পেনাল্টি দেন রেফারি। পেনাল্টি থেকে গোল করতে ভুল করেননি র‌্যাশফোর্ড।

জয়ের ফলে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড গেল কোয়ার্টার ফাইনালে। অন্য দিকে,  টানা তিন বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ১৬ থেকে বিদায় নিল পিএসজি।

(চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, এল ক্লাসিকো, লা লিগা, ইপিএল, বুন্দেশলিগা, সিরি এ থেকে ফিফা বিশ্বকাপ - ফুটবল জগতের সব খবর আমাদের খেলা বিভাগে।)